Education makes a door to bright future

University admission and others information,International Scholarships, Postgraduate Scholarships, College Scholarship, Study Abroad Financial Aid, Scholarship Search Center and Exam resources for PEC, JSC, SSC, HSC, Degree and Masters Examinees in Bangladesh with take from update sports News, Live score, statistics, Government, Private, current Job Circular take from this site

Education is a way to success in life

University admission and others information,International Scholarships, Postgraduate Scholarships, College Scholarship, Study Abroad Financial Aid, Scholarship Search Center and Exam resources for PEC, JSC, SSC, HSC, Degree and Masters Examinees in Bangladesh with take from update sports News, Live score, statistics, Government, Private, current Job Circular take from this site

Education is a best friend goes lifelong

University admission and others information,International Scholarships, Postgraduate Scholarships, College Scholarship, Study Abroad Financial Aid, Scholarship Search Center and Exam resources for PEC, JSC, SSC, HSC, Degree and Masters Examinees in Bangladesh with take from update sports News, Live score, statistics, Government, Private, current Job Circular take from this site

Education makes a person a responsible citizen

University admission and others information,International Scholarships, Postgraduate Scholarships, College Scholarship, Study Abroad Financial Aid, Scholarship Search Center and Exam resources for PEC, JSC, SSC, HSC, Degree and Masters Examinees in Bangladesh with take from update sports News, Live score, statistics, Government, Private, current Job Circular take from this site

Education is a key to the door of all the dreams

University admission and others information,International Scholarships, Postgraduate Scholarships, College Scholarship, Study Abroad Financial Aid, Scholarship Search Center and Exam resources for PEC, JSC, SSC, HSC, Degree and Masters Examinees in Bangladesh with take from update sports News, Live score, statistics, Government, Private, current Job Circular take from this site

Thursday, November 22, 2018

কিছু সাম্প্রতিক প্রশ্ন যা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় এসেছে-বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি

কিছু সাম্প্রতিক প্রশ্ন যা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় এসেছে-বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি
--------------------------------------------------------------------------------------------------------
০১. দেশের #২য়_পারমানবিক বিদুৎ কেন্দ্র হবে- হিজলা, বরিশাল।
০২. দারিদ্র্যের হার সবচেয়ে কম- নারায়ণগঞ্জ জেলায়।
০৩. বাংলাদেশে #4G চালু হয়- ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮।
০৪. "পতাকা ৭১" ভাস্কর্যটির ভাস্কর - রুপম রায় (মুন্সিগঞ্জে)
০৫. ২০১৮ সালের #product of the year ঘোষনা করা হয়- ওষুধ শিল্পকে।
০৬. বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি #ঋন পায়- IDA থেকে।
০৭. গ্যাস অনুসন্ধানে বাংলাদেশকে ভাগ করা হয়েছে- ২৩ ব্লকে।
০৮. ট্রারিফ কমিশন - বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন।
০৯. কমনওয়েলথের বর্তমান সদস্য - ৫৩ টি (সর্বশেষ গাম্বিয়া)
১০. #দারিদ্র্যের_হার সবচেয়ে বেশি- কুড়িগ্রাম জেলায়।
১১. মাহাথির মোহাম্মদের বর্তমান দলের নাম- পাকাতান হারাপান।
১২. ২০১৮ সালে নোবেল পুরষ্কার স্থগিত যে বিষয়ে - সাহিত্য।
১৩. ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং কিম জং উন এর বৈঠক হয় - ক্যাপেলা রিসোর্ট, সেন্টোসা দ্বীপ, সিঙ্গাপুর।
১৪. ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং পুতিনের মাঝে বৈঠক হয়- হেলসিংকি, ফিনল্যান্ড।
১৫. পদ্মা সেতুর বর্তমান দৃশ্যমান অংশ- ৭৫০ মিটার।
১৬- মাইকেল ওন্দাৎজে যে বইটির জন্য ম্যান বুকার পুরষ্কার পান- 'দ্য ইংলিশ পেশেন্ট "
১৭. টি টোয়েন্টি নারী বিশ্বকাপ ২০১৮ অনুষ্ঠিত হবে- ওয়েস্ট ইন্ডিজে।
১৮. সপ্তাহ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে- অস্ট্রেলিয়া (২০২০ সালে)
১৯. #বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮ এর "ম্যান অফ দ্যা ফাইনাল "- অ্যান্তনি গ্রিজম্যান
২০. আন্তর্জাতিক নারী টি টোয়েন্টি ক্রিকেট বাংলাদেশের পক্ষে
#১ম_হ্যাট্রিক_করেন - ফাহিমা খাতুন।
২১. বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ভবন অবস্থিত- রাজশাহীতে।
২২. বর্তমান বিশ্বের #সেরা ধনী - অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজস।
২৩. পরিত্যক্ত পলিথিন থেকে #জ্বালানি তেল উৎপাদন পদ্ধতির উদ্ভাবক- তৌহিদুল ইসলাম।
২৪. দেশকে #মাদকমুক্ত ঘোষণা করা হবে- ২০৪১ সালের মধ্যে।
২৫. নারী ক্ষমতায়নে দেশের
#প্রথম_অনলাইন_ভিত্তিক_জব_মার্কে
ট_প্লেস - #"দ্য টু আওয়ার জব ডটকম"।
২৬. অর্থনৈতিক সমীক্ষা ২০১৮ অনুযায়ী দেশের বর্তমান #মাথাপিছু আয়- #১৭৫২ মা. ডলার।
২৭. সম্প্রতি ২১ শে ফেব্রুয়ারি জাতীয়ভাবে পালনের জন্য যে দেশ বিল পাস করেছে- অস্ট্রেলিয়া।
২৮. সংবিধানের ১৭তম সংশোধনীতে সংরক্ষিত আসনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে- ২৫ বছর।
২৯. রোহিঙ্গাদের উপর নির্মিত বাংলাদেশের স্বল্পদৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র - #A pair of Sandal.
৩০. বর্তমানে দেশে তফসিলিভুক্ত ব্যাংকের সংখ্যা - ৫৮ টি (রাষ্ট্রীয় ৯টি)।
৩১. দেশের #ফুলের_রাজধানী বলা হয়- যশোরের গদখালীকে।
৩২. বর্তমানে দেশে মোট
#উৎপাদনরত_গ্যাসক্ষেত্র - ২৭ টি।
৩৩. বঙ্গবন্ধুর জেল জীবনের উপর রচিত বইয়ের নাম- ৩০৫৩ দিন।
৩৪. দেশে বর্তমানে #নদী_বন্দর - ৩২ টি।
৩৫. বাংলাদেশ বিশ্বের কততম দেশ হিসেবে #e-passport যুগে যাত্রা শুরু করে- ১১৯ তম।
৩৬. মাদক বিরোধী অভিযানের নাম ছিল- চলো যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে।
৩৭. বর্তমানে পাটের ব্যাগ ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক - #১৯ টি পণ্যে।
৩৮. বর্তমানে #স্বর্ণ উৎপাদনে শীর্ষ দেশ- চীন।
৩৯. ইমরান খানের রাজনৈতিক দলের নাম- তেহরিক-ই-ইনসাফ।
৪০. অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী - স্কট মরিসন।
৪১. অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালে
র নতুন মহাসচিব- কুমি নাইডো।
৪২. আফ্রিকান দেশগুলোতে
#বেলুনের_সাহায্যে_ইন্টারনেট_
ছড়িয়ে দেয়ার প্রকল্পের নাম- "প্রজেক্ট লুন"।
৪৩. #MNP (Mobile Number Portability) সর্বপ্রথম চালু হয় যে দেশে- সিঙ্গাপুর।
৪৪. OPEC এর বর্তমান সদস্য দেশ- ১৫ টি।
৪৫. কফি আনানের আত্মজীবনী - "
#Interventions : A life in war & Peace "।
৪৬. #"মিন্দানাও_দ্বীপ" অবস্থিত -ফিলিপাইনে।
৪৭. বিশ্বের ১ম দল হিসেবে ১ হাজার টেস্টের মাইলফলক স্পর্শ করে - ইংল্যান্ড।
৪৮. বর্তমান কমনওয়েলথ মহাসচিব - প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড।
৪৯. বাংলাদেশের ৮ম টেস্ট ভেন্যু- সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম।
৫০. "Starry Sky-2" নামক হাইপারসনিক বিমানের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে- চীন।
৫১. "Parker Solar Probe " হচ্ছে - সূর্য অভিযানে নাসার প্রেরিত নভোযান।
৫২. ঐতিহাসিক #"রোজ_গার্ডেন " অবস্থিত - টিকাটুলি, ঢাকা।
৫৩. দেশের মোট #গ্যাসক্ষেত্র - ২৭ টি (উৎপাদনরত- ১৯ টি)
৫৪. #"রাজাধিরাজ_রাজ্জাক" প্রামাণ্যচিত্রের নির্মাতা - শাইখ সিরাজ।
৫৫. #উইজডন_বর্ষসেরা_তরুণ_ক্রিকেটার_
২০১৮ - কাগিসো রাবাদা (দঃ আফ্রিকা)।
৫৬. বিশ্বের সবচেয়ে #ক্ষমতাধর_পাসপোর্ট - জাপান ও সিঙ্গাপুরের ( ১৮৯ টি দেশে বিনা ভিসায় ভ্রমন করতে পারেন)।
৫৭. নরওয়ের বিশ্ববিখ্যাত জরিপকারী জাহাজ- ফ্রিডজফ ন্যানসেন।
৫৮. পাটের ব্যাগ ব্যবহার বাধ্যতামূলক- ১৯ টি পণ্যে।
৫৯. বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর কারণে কেউ গুরুতর আহত বা নিহত হলে "সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮" অনুযায়ী সাজা - সর্বোচ্চ ৫ বছর কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫ লাখ জরিমানা বা উভয় দন্ড।
৬০. আওয়ামী মুসলিম লীগ (বর্তমান আওয়ামী লীগ)
৬১. পাকিস্তানের পার্লামেন্ট ভবনের নাম - #মজলিস -ই-শূরা।
৬২. পাকিস্তানের ইতিহাসে ১ম অমুসলিম সংসদ সদস্য - #মহেশ_কুমার_মালানি (পিপলস পার্টির)।
৬৩. সম্প্রতি #"মহাকাশ_বাহিনী" গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে- USA.
৬৪. বিশ্বের প্রথম ট্রিলিয়ন ডলারের পাবলিক কোম্পানি - #"Apple_Incorporated".
৬৫. সপ্তম আইসিসি T20 বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে - অস্ট্রেলিয়ায়।
৬৬. সম্প্রতি উদ্বোধনকৃত বাংলাদেশ বিমানের বোয়িং ড্রিমলাইনার উড়ো জাহাজটির নাম-- #আকাশবীণা ।
৬৭. জাতিসংঘ মানব উন্নয়ন সূচক-২০১৮ তে বাংলাদেশের অবস্থান- ১৩৬ তম। (শীর্ষে নরওয়ে) Raisul Islam Hridoy
৬৮. আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস- ৮ সেপ্টেম্বর।
৬৯. বাংলাদেশে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী মোট জনসংখ্যার - ১.১০% ভাগ।
৭০. বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি ওষুধ রপ্তানি করে- মিয়ানমারে।
৭১. ন্যাটোর বর্তমান সদস্য- ২৯ টি (সর্বশেষ মন্টিনিগ্রো)
৭২. বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী সুপার কম্পিউটারের নাম-- Summit, USA এর।
৭৩. বর্তমানে #বীরাঙ্গনা_মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা - ২৩১ জন।
৭৪. #"তুম্রু" সীমান্তবর্তী অঞ্চলটি -- বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে।
৭৫. পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ যথাক্রমে - ৬.১৫ কি.মি. এবং ১৮.১০ মি.।
৭৬. মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা তাদের নাগরিকত্ব হারায় - ১৯৮২ সালে।
৭৭. ২০১৮-১৯ অর্থবছরে মোট জাতীয় বাজেট-- #৪,৬৪,৫৭৩ কোটি টাকা।
৭৮. ফলকেটিং ( Folketing) কোন দেশের আইনসভা- ডেনমার্ক।
৭৯. ২০১৮ সালের বিশ্ব পরিবেশ দিবসের প্রতিপাদ্য- "প্লাস্টিক দূষণকে পরাজিত করি"।
৮০. #দেশের_প্রথম_নারী_প্রোগ্রামার -- শাহেদা মুস্তাফিজ।
৮১. জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা দিবস- ০১ ডিসেম্বর।
৮২. বাংলাদেশে সর্বপ্রথম মোবাইল ব্যাংকিং চালু করে- ডাচ-বাংলা ব্যাংক।
৮৩. BSEC এর চেয়ারম্যানের মেয়াদকাল-- ৪ বছর
৮৪. মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের মাসকটের নাম- বাগড্রয়েড (Bugdroid)।
৮৫.সরকারি চাকুরিতে কোটা পদ্ধতি চালু হয়- ৫ নভেম্বর, ১৯৭২।
৮৬.যুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিট কার্যকর হবে- ২০১৯ সালের ১৯ শে মার্চ।
৮৭. "Daily Telegraph" পত্রিকাটি- যুক্তরাজ্যের।
৮৮. বাংলাদেশে "Agent Banking" চালু করে সর্বপ্রথম- Bank Asia.
৮৯. "Agent Banking" এ শীর্ষে-- Dutch-Bangla Bank Limited.
৯০. দেশে "Agent Banking" এর কার্যক্রম শুরু হয়- ২০১৩ সালে।
৯১. "বদ্বীপ - পরিকল্পনা ২১০০" প্রণয়ন করেছে- পরিকল্পনা কমিশনের অর্থনীতি বিভাগ।
৯২. "বদ্বীপ পরিকল্পনা" এর ইংরেজি নাম-- Delta Plan.
৯৩. "বদ্বীপ পরিকল্পনা" প্রণয়ন করা হয়েছে যে দেশের ডেল্টা প্লানের আলোকে-- নেদারল্যান্ডস।
৯৪. "বদ্বীপ পরিকল্পনা" এর বৃহৎ পরিসরে মোট লক্ষ্য- ০৩ টি ( ২০৩০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্র্যতা দূর করা; ২০৩০ সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত এবং ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ দেশের মর্যাদা অর্জন)।
৯৫."বদ্বীপ পরিকল্পনা" এর মেয়াদ-- ১০০ বছর।
৯৬. "বঙ্গবন্ধু ০১" এর পরীক্ষামূলক সম্প্রচার শুরু হয়- ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮।
৯৭. FAO এর তথ্যনুযায়ী, ধান উৎপাদনে বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বে- #৪র্থ ।
৯৮. FAO এর তথ্যনুযায়ী, মাছ উৎপাদনে বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বে- #৩য় ।
৯৯. "Mobile Banking" এর মাধ্যমে দেশে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হচ্ছে- প্রায় #৯৯৪ কোটি টাকা।
১০০. বাংলাদেশের মানুষের #গড়_আয়ু- ৭২.৮০ বছর।
১০১. UADP মানব উন্নয়ন প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশে বর্তমানে স্বাক্ষরতার হার- #৭২.৮০%।
১০২. দেশের ১ম #৬_লেনের_Express_Highway - ঢাকা টু ফরিদপুরের ভাঙ্গা।
১০৩. "সড়ক পরিবহন বিল- ২০১৮" সংসদে পাস হয়- ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮।
১০৪. দেশের ১ম শতভাগ স্যানিটেশনের আওতাধীন জেলা- #কুমিল্লা ।
১০৫. "১৬২৬৩" নম্বরে কল করলে যে সেবা পাওয়া যাবে- Ambulance.
১০৬. "২০১৮-১৯" অর্থবছরে জাতীয় বাজেটের পরিমাণ-- ৪,৬৪,৫৭৩ কোটি টাকা।
১০৭. বিমসটেক সম্মেলন ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়- কাঠমুন্ডে।
১০৮. "বদ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০" যার সাথে যুক্ত- জলবায়ু পরিবর্তন।
১০৯. #Ground_Zero অবস্থিত- New York.
১১০. "ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০" অনুমোদন দেয়া হয়-- ০৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮।
১১১. "ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০" এর অনুমোদন প্রদান করে-- জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (NEC).
১১২. " ব-দ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০" এর ১ম পর্যায়ের মোট প্রকল্প-- ৮০ টি।
১১৩. OPEC এর বর্তমান সদস্য দেশ- ১৫ টি (সর্বশেষ কঙ্গো প্রজাতন্ত্র)।
১১৪. অর্থনৈতিক সমীক্ষা ২০১৮ অনুযায়ী দেশে পুরুষ- মহিলার অনুপাত-- ১০০.৩ : ১০০।
১১৫. ১২তম বিশ্বকাপ ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হবে- England.
১১৬. বিশ্বের প্রথম হাইড্রোজেন চালিত ট্রেন চালু হয়েছে যে দেশে- Germany.
১১৭. "Interventions: A Life in war and Peace "-- কফি আনানের লেখা আত্মজীবনী।
১১৮. কফি আনান শান্তিতে নোবেল পুরুষ্কার পান- ২০০১ সালে।
১১৯. AIIB এর বর্তমান সদস্য দেশ- ৬৮ টি (Asian Infrastructure Investment Bank)
১২০. পরিসংখ্যান ব্যুরো ২০১৭-১৮ এর তথ্যমতে: => বর্তমানে দেশের জনসংখ্যা #১৬৩.৬৫ মিলিয়ন
=> #মাথাপিছু_আয়_১৭৫১ মা. ডলার (অর্থনৈতিক সমীক্ষা অনুযায়ী ১৭৫২)
=> জিডিপির প্রবৃত্তির হার ৭.৮৬%
১২১. " বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ০১" উৎক্ষেপণ করা হয়-- ১১ মে, ২০১৮।
১২২. "বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ০১" ব্যবহার করে পরীক্ষামূলক সম্প্রচার শুরু-- ০৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮।
১২৩. "বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ০১" উৎক্ষেপণ করা হয়-- যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরাল হতে।
১২৪. স্যাটেলাইট সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্বে- ৫৭ তম।
১২৫. "বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ০১" এর বাণিজ্যিক কার্যক্রমের পরামর্শক- থাইল্যান্ডের স্যাটেলাইট কোম্পানি "থাইকম"।
১২৬. বর্তমানে দেশে পোশাক শিল্পে জড়িত শ্রমিক সংখ্যা- প্রায় ৩৬ লক্ষ।
১২৭. ২০১৮ সালের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার- লুকা মডরিচ।
১২৮. বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি #তালাক হয় যে বিভাগে- #বরিশাল ।
১২৯. " জাম্বুরি পার্ক " অবস্থিত- আগ্রাবাদ, চট্টগ্রাম।
১৩০. আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবস- ০৮ সেপ্টেম্বর।
১৩১. #বঙ্গবন্ধুর_লেখা_বইসমূহ -
=> অসমাপ্ত আত্মজীবনী
=> কারাগারের রোজনামচা
=> নয়া চীন ভ্রমন
=> আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা
=> স্মৃতিকথা
১৩২. বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভাস্কর্য- Statue of Unity (গুজরাট, ভারত)।
১৩৩. ৫ম বিমসটেক সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে- Srilanka.
১৩৪. বর্তমানে শীর্ষ তেল উৎপাদনকারী দেশ- USA.
কিছু সাম্প্রতিক প্রশ্ন যা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় এসেছে-বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি

Sunday, November 11, 2018

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ও সমাধান

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ও সমাধান---
Questions and Solutions for Primary Teacher Recruitment Examination


১. কোন বীরশ্রেষ্ঠের সমাধিস্থল পাকিস্তানের করাচিতে ছিল-মতিউর রহমান
২. গেটিসবার্গ শহরের সাথে মার্কিন কোন প্রেসিডেন্টের নাম জড়িত- আব্রাহাম লিংকন
৩. অসমাপ্ত আত্মজীবনী প্রকাশ কাল-২০১২
৪. X^-3 -.001= 0 হলে x^2=? 100
৫. কৈশর এর প্রকৃতি ও প্রত্যয়- কিশোর + ষ্ণ
৬. Out and out means- Thoroughly
৭. ৬৫৫৮ এর সাথে কোনটি যোগ করলে এটি পুর্ণবর্গ সংখ্যা হবে- ৩
৮. The word gravity is- Noun
৯. ১ থেকে ৯৯ সংখ্যার গড় কত- ৫০
১০. Correct spelling- achievement
১১. কোনটি বৃহত্তম- ৪/৩
১২. কপোল এর প্রতিশব্দ-গাল
১৩. শতকরা কত হার সুদে ২৫ বছরে কোন মূলধন সুদেমুলে ৪ গুন হবে- ১২%
১৪. ভারতে প্রথম প্রতীক মুদ্রা প্রবর্তন করেন- মুহম্মদ বিন তুঘলক
১৫. একটি বৃত্তের যেকোন দুটি সংযোগ রেখাকে কি বলে- জ্যা
১৬. লাজওয়াব শব্দে লা কোন উপসর্গ- আরবি
১৭. রেল লাইনের পাশে একটি তাল গাছ আছে। ঘন্টায় ৪৫ কিঃ মিঃ বেগে ধাবমান ১৫০ মিটার লম্বা ট্রেন কত সময়ে ঐ তাল গাছটি অতিক্রম করবে?- ১২ সেকেন্ড
১৮. The chain was—–than we thought. – Stronger
১৯. শুদ্ধ বানান- বুদ্ধিজীবী
২০. স্বাধীনতা যুদ্ধকালে অস্থায়ী সরকার গঠিত হয়- ১৭ এপ্রিল
২১. আগুনের পরশমণি উপন্যাসের উপজীব্য বিষয় কি- মুক্তিযুদ্ধ
২২.নিচের কোনটি গ্রিন হাউজ গ্যাস- কার্বন ডাই অক্সাইড
২৩. Passive form of – He is going to open a shop- A shop is going to be opened by him
২৪.যার দুই হাত সমান চলে- সব্যসাচী
২৫. ঐতিহাসিক একুশে ফেব্রুয়ারি বাংলা কত তারিখ – ৮ ফালগুন
২৬.কোন পরীক্ষায় ৫২% পরীক্ষার্থী ইংরজিতে এবং ৪২% পরীক্ষার্থী গণিতে ফেল করল। যদি উভয় বিষয়ে ১৭% ফেল করে থাকে , তবে কতজন পরীক্ষার্থী উভয় বিষয়ে পাশ করেছে- ২৩জন
২৭.সবার উপরে মানুষ সত্য , তাহার উপর নাই উক্তিটি – চন্ডীদাস
২৮. ক্ষুৎপিপাসা সন্ধি বিচ্ছেদ- ক্ষুধ+পিপাসা
২৯. বাংলাদেশের বীরত্বসূচক উপাধির মধ্যে ২য় কোনটি- বীর উত্তম
৩০. ৩০.কোন পরীক্ষায় ৫২% পরীক্ষার্থী ইংরজিতে এবং ৪২% পরীক্ষার্থী গণিতে ফেল করল। যদি উভয় বিষয়ে ১৭% ফেল করে থাকে , তবে কতজন পরীক্ষার্থী উভয় বিষয়ে পাশ করেছে- ২৩জন
৩১. সবার উপরে মানুষ সত্য , তাহার উপর নাই উক্তিটি – চন্ডীদাস
৩২. কোন ক্ষুদ্রতম সংখ্যা হতে ১ বিয়োগ করলে বিয়োগফল ৯, ১২, ৩ দ্বারা নিঃশেষে বিভাজ্য হবে? -১৮১
৩৩. The Train—-From Rangpur. –Has already arrived
৩৪. সমকোণী ত্রিভুজের সমকোণের বিপরীত একটি কোণ ৫০° হলে অপর কোণটি কত?- ৪০°
৩৫. He lives —comfortable life- a
৩৬.এই বিশ্বকে শিশুর বাসযোগ্য করা যাবে- সুকান্ত ভট্রাচার্য ৩৭.দূর প্রাচ্যের দেশ- জাপান
৩৮. বাংলাদেশের সংবিধানের কোন অংশে শিক্ষার জন্য সাংবিধানিক অধিকার ব্যক্ত আছে- ১৭
৩৯. Shakespeare is known mostly for his-Drama
৪০.সন্ধি বিচ্ছেদ করুন কথাচ্ছলে – কথা+ছলে
৪১.বরেন্দ্রভূমি নামে পরিচিত- রাজশাহী বিভাগের উত্তর-পশ্চিমাংশ
৪২. ১৫ জনের কোন কাজের অর্ধেক করতে ২০ দিন লাগে , কত দিনে ২০ জন লোক পুরো কাজটি শেষ করতে পারবে- ৩০ দিনে
৪৩.বিরাম চিহ্ন এর মধ্যে পূর্ণচ্ছেদ- দাঁড়ি
৪৪. Man of straw meaning-Worthless Man
৪৫. একটি সমবাহু ত্রিভুজে একটি বাহু ১৬ মিটার। ত্রিভুজটির ক্ষেত্রফল কত- কোনটিও নয়- (সঠিক ৬৪√৩)
৪৬.বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি তাই আমি পৃথিবীর রূপ- জীবনানন্দ দাশ
৪৭.If we want concrete proof, we are looking for- Clear evidence
৪৮.যদি X+3Y= 40 এবং Y=3X তবে y=? -১২
৪৯.সামন্তরিকের কর্ণদ্বয় পরস্পর সমান হলে সামন্তিকটি হবে- আয়তক্ষেত্র
৫০. one should be careful about —duty. -Ones
৫১. Nine Men were concerned —the plot. – In
৫২. Indirect narration- Farida told her mother that she would go to bed.
৫৩. A pilgrim is a person who undertakes a journey to ——. Holy Place
৫৪.মানব দেহের রক্তচাপ নির্ণায়ক যন্ত্র- স্ফিগমোম্যাননোমিটার
৫৫. A voyage to lilliput written by – Jonathan swift
৫৬.নোবেল পুরুস্কার প্রবর্তকের মূল আবিস্কার প্রধানত কি কাজে ব্যবহৃত হয়- ধ্বংসের জন্য
৫৭.ঈস্ট কি- একটি ছত্রাক
৫৮.নিচের কোনটি যৌগিক স্বরধ্বনি- ঔ
৫৯. Which of the noun used as feminine form- Moon
৬০.নিচের কোনটি পূর্ণাঙ্গ ইমেই এড্রেস- rasel@yahoo.com
৬১.ভিটামিন সি এর রাসায়নিক নাম কি –এসকরবিক
৬২.কোন আমলে মসলিন কাপড় ঢাকায় তৈরি করা হতো-মোঘল
৬৩.৬০ মিটার দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট একটি নলকে ৩ঃ৭ঃ১০ অনুপাতে টুকড়া করা হয়েছে। ছোট টুকরাতী কত মিটার- ৯মিটার
৬৪.৬১২ টাকায় একটি ব্যাগ বিক্রয় করায় ১৫% ক্ষতি হয় । ব্যাগটি কত টাকায় বিক্র্য করলে ১০% লাভ হবে- ৭৯২
৬৫.৩/৪ ৪/৫ ৫/৬ এর গসাগু কত- ১/৬০
৬৬.বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় জাতিসংঘের মহাসচিব ছিলেন-উ থান্ট
৬৭.জনসংখ্যায় ও আয়তনের ভিত্তিতে সার্কভুক্ত কোন দেশটি সবচেয়ে ছোট- মালদ্বীপ
৬৮.৭ এর গুণিতকের সেট কোন ধরণের সেট- অসীম সেট
৬৯.১৯৪৩ সালের দূর্ভীক্ষের উপরে ছবি এঁকে বিখ্যাত হন কোন শিল্পী- শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন
৭০.যা দীপ্তি পাচ্ছে এক কথায় প্রকাশ – দেদীপ্যমান
৭১.কম্পিউটারের স্থায়ী স্মৃতি- Rom
৭২. সন্ন্যাসী এর বিপরীত শব্দ – গৃহী
৭৩. রাবনের চিতা বাগধারার অর্থ- চির অশান্তি
৭৪. নিচের কোনটি মধ্যপদলোপী বহুব্রীহি সমাসের উদাহরণ নয়-বেতার
৭৫. Nasima arrived, while I——the dinner. – Was cooking
৭৬. ডাক্তার ডাক বাক্যটিতে “ডাক্তার” কোন কারকে কোন বিভক্তি- কর্মকারকে শূণ্য বিভক্তি
৭৭. ১ মিলিমিটার ১ কিলোমিটার কত অংশ- ১/১০০০০০০
৭৮. Synonym of Tenuous- Thin
৭৯. The invigilator made us——our identity card at test center. – Showing
৮০. Correct sentence- The Padma is the longest river in Bangladesh

Questions and Solutions for Primary Teacher Recruitment Examination


Friday, November 9, 2018

কেমন হতে পারে বিসিএস প্রিলিমিনারী ও চাকরির পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁদ?

বিসিএস ও চাকরির পরীক্ষায় কনফিউশন সৃষ্টি করে, এরকম বাছাই করা সকল প্রশ্ন ফাঁদ, কেমন হতে পারে বিসিএস প্রিলিমিনারী ও চাকরির পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁদ?

======প্রশ্নগুলো গুরত্ব সহকারে পড়ে নিন=======

প্রশ্ন ১ : চীনের প্রথম প্রেসিডেন্ট —-সান ইয়াত সেন নাকি মাও সেতুং।
উত্তর : সান ইয়াত সেন
ব্যাখ্যা : যদি বলা হয় গনচীনের প্রথম প্রেসিডেন্ট কে? তখন হবে মাও সেতুং

🎯 প্রশ্ন ২ : পানামা খাল খননের প্রথম উদ্যোগ নিয়েছিল কোন দেশ—–আমেরিকা নাকি ফ্রান্স?
উত্তর : ফ্রান্স
ব্যাখ্যা : যদি বলা হয় পানামা খাল খনন সমাপ্তকারী দেশ কোনটি? তখন উত্তর হবে আমেরিকা।

🎯 প্রশ্ন ৩ : ১৯৩৭ সালে মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ মুসলিম লীগের দাপ্তরিক ভাষা ঊর্দুর প্রস্তাব করলে কে তার প্রথম বিরোধীতা করে?
ক) ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত খ) এ.কে ফজলুল হক
গ) অধ্যাপক আবুক কাশেম ঘ) আবদুল মতিন
ব্যাখ্যাঃ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত পাকিস্তানের দাপ্তরিক ভাষা ঊর্দুর পাশাপাশি বাংলাকে করার দাবি জানিয়েছেন। বলা হয়েছে, মুসলিম লীগের দাপ্তরিক ভাষা ঊর্দুর বিরোধীতা কে করেন এবং সেটা ১৯৩৭ সালে। এর উত্তর হবে এ কে ফজলুল হক। আর পাকিস্তানের গণপরিষদের দাপ্তরিক ভাষা কেবল ঊর্দু হবে – এটার বিরোধীতাকারী ছিলেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত এবং সেটা ১৯৪৮ সালে।
উত্তরঃ খ

🎯 প্রশ্ন ৪ : শাসন বিভাগকে বিচার বিভাগ হতে পৃথক করার কথা প্রথম কোথায় বলা হয়?
ক) যুক্তফ্রন্ট এর ২১ দফায়
খ) বাংলাদেশের সংবিধানের ২২ নং অনুচ্ছেদে
গ) ৬ দফায়
ঘ) প্রথম নির্বাচনী ইশতেহারে
ব্যাখ্যাঃ সংবিধানের ২২ নং অনুচ্ছেদে নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথক করার কথা বলা আছে। এখানে মুল সমস্যাটা “প্রথম ” শব্দটা নিয়ে। সংবিধানের ২২ নং অনুচ্ছেদে নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ আলাদা করার কথা বলা আছ, কিন্তু কথাটা প্রথম উল্লেখ আছে যুক্তফ্রন্টের ২১ দফার ১৫ নং দফায়।
উত্তর :: ক

🎯 প্রশ্ন ৫ : ১০ এপ্রিল ১৯৭১ বাংলাদেশকে কয়টি সেক্টরে বিভক্ত করা হয়?
ক) ৪টি খ) ৮টি গ) ৯টি ঘ) ১১টি
ব্যাখ্যাঃ ১০ এপ্রিল ১৯৭১ বাংলাদেশকে ৪টি সেক্টরে বিভক্ত করা হয়। পরেরদিন অর্থাৎ ১১ এপ্রিল ১৯৭১ বাংলাদেশকে আবার ১১টি সেক্টরে বিভক্ত করা হয়। কিন্তু প্রশ্নতো বলা আছে ১০ এপ্রিলের কথা।
উত্তর : ক

🎯 প্রশ্ন ৬ : OPEC ভূক্ত দক্ষিণ এশিয়ার ও অনারব মুসলিম দেশ কোনটি??
a.Iran
b.None
উত্তর :: A
ইরান দক্ষিন এশিয়ার একমাত্র অনারব মুসলিম দেশ যা কিনা OPEC এর সদস্য

🎯 প্রশ্ন ৭ : Who is the present President of the National Assembly of Bangladesh?
a) Fazle Rabbi Mia b) Abdul Hamid
c) Shirin Sharmin Chowdhury d) Sheikh Hasina

ব্যাখ্যাঃ National Assembly of Bangladesh এর present President কে? যিনি স্পীকার থাকবেন তিনিই present President of the National Assembly of Bangladesh। অর্থাৎ
উত্তর শিরীন শারমিন চৌধুরী।

🎯 প্রশ্ন ৮ : “চতুর্দশপদী ” নামের কবিতা কে লিখেছেন?
ক) মাইকেল মুধুসুদন দত্ত খ) বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
গ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ঘ) মৃত্যুঞ্জয় বিদ্যালংকার

ব্যাখ্যাঃ “চতুর্দশপদী কবিতা ” বললে হবে মাইকেল মধুসুদন দত্ত, কিন্তু এখানে প্রশ্নে আছে “চতুর্দশপদী ” নামের কবিতা। অর্থাৎ কবিতাটির নাম “চতুর্দশপদী কবিতা ” নয়, শুধু “চতুর্দশপদী “, এর লেখক বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়।
উত্তর :: খ

🎯 প্রশ্ন ৯: চতুরঙ্গ কী?
ক) রবীন্দ্রনাথের নাটক
খ) দাবা খেলার আদি নাম
গ) একটি গ্রহ
ঘ) একটা যাত্রাদলের নাম

ব্যাখ্যঃ “চতুরঙ্গ ” হল রবীন্দ্রনাথের উপন্যাস কিন্তু অপশনে দেয়া আছে নাটক, তাই এটি হবে না। অপরদিকে দাবা খেলার আদি নাম চতুরঙ্গ।
উত্তর :: খ

🎯 প্রশ্ন ১০ : বাংলা সাহিত্যের সায়েন্স ফিকশনের জনক কে ?
== হুমায়ূন আহমেদ । এটি সম্পুর্ণ ভুল তথ্য।
***সঠিক উত্তর হবে জগদীশ চন্দ্র বসু। অব্যক্ত বাংলা সাহিত্যের প্রথম সায়েন্স ফিকশন


🎯 প্রশ্ন ১১ : ‘বড় কে’ কবিতাটির লেখক?
a.ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
b. হরিশচন্দ্র মিত্র
উত্তর :হরিশচন্দ্র মিত্র

ব্যাখ্যাঃ ৩য় শ্রেণীর বাংলা পাঠ্য বইয়ে এ কবিতার কবি হিসেবে লেখা ছিল ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের নাম। এখন কবির নামের জায়গায় লেখা হয়েছে হরিশচন্দ্র মিত্রের নাম। এখন প্রশ্ন উঠেছে- কবিতাটির আসল কবি কে?
‘বড় কে?’ কবিতাটি দীর্ঘদিন ধরে পড়ানো হচ্ছে তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীদের। এত দিন তৃতীয় শ্রেণির বাংলা পাঠ্য বইয়ের ৯৬ নম্বর পৃষ্ঠায় ছিল কবিতাটি। এবার ছাপা হয়েছে ৯০ নম্বর পৃষ্ঠায়। আর এবার শুধু কবির নামই বদলায়নি, কবিতার চারটি লাইনও বাদ দেওয়া দেওয়া হয়েছে। আগে ছিল ১৬ লাইন, এখন রাখা হয়েছে ১২ লাইন। কয়েকটি শব্দের বানানও বদলে দেওয়া হয়েছে।

আবার ‘হরিশচন্দ্র মিত্রের’ নামের বানান লেখা হয়েছে ‘হরিশ্চন্দ্র মিত্র’।

🎯 প্রশ্ন ১২ : বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালীন নিউইয়র্কে “কনসার্ট ফর বাংলাদেশ ” এর প্রযোজনা করেন কারা?
ক) জর্জ হ্যারিসন ও এলেন ক্ল্যাইন
খ) জর্জ হ্যারিসন ও পন্ডিত রবি শংকর
গ) পন্ডিত রবি শংকর ও এলেন ক্ল্যাইন
ঘ) জর্জ হ্যারিসন ও ইয়ভগেনি ইয়েভ।
প্রশ্নের ফাঁদঃ কিন্তু সঠিক উত্তর হল ক) জর্জ হ্যারিসন ও এলেন ক্ল্যাইন। কারণ প্রশ্নে বলা হয়েছে কারা প্রযোজনা করেন? কিন্তু আপনি এতদিন শিখে এসেছেন কারা আয়োজন করে? কনসার্ট ফর বাংলাদেশের আয়োজন করে জর্জ হ্যারিসন ও পন্ডিত রবি শংকর। কিন্তু প্রযোজনা করেন জর্জ হ্যারিসন ও এলেন ক্ল্যাইন।

🎯 প্রশ্ন ১৩ : Question:Preface to Lyrical Ballads কবে প্রকাশিত হয়?
a. 1802
b. 1798
Ans::1802
Lyrical Ballads প্রকাশিত হয় 1798 সালে। আর Preface to Lyrical Ballads প্রকাশিত হয় 1802 সালে।

🎯 প্রশ্ন ১৪ : ইসরাইল কে স্বীকৃতি দানকারী প্রথম মুসলিম দেশ?
a.মিসর
b. তুরস্ক
উত্তর :: তুরস্ক, ১৯৪৯ ( তুরস্ক মধ্যপ্রাচ্য এর অনারব মুসলিম দেশ)
ব্যাখ্যা :: মিসর প্রথম আরব ও মুসলিম দেশ হিসেবে ইসরাইল স্বীকৃতি কে দেয়, ১৯৭৮ সালে।
—USA প্রথম দেশ হিসেবে ইসরাইল স্বীকৃতি কে দেয় ১৯৪৯

🎯 প্রশ্ন ১৫ : প্রশ্নঃ জাতিসংঘের মহাসচিব হিসেবে সর্ব প্রথম দায়িত্ব পালন করেন –
ক। ডগ হামারশোল্ড
খ। ট্রাইগভে লাই
গ। স্যার গ্লাডউইন জেব
ফাঁদ: ট্রাইগভে লাই
উত্তর: স্যার গ্লাডউইন জেব
ব্যাখ্যা:
জাতিসংঘের প্রথম নির্বাচিত মহাসচিব = ট্রাইগভে লাই
জাতিসংঘের মহাসচিব হিসেবে সর্ব প্রথম দায়িত্ব পালন করেন = স্যার গ্লাডউইন জেব
জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর ট্রাইগভে লাই প্রথম মহাসচিব পদে নির্বাচিত হন। কিন্তু তাঁর পূর্বে যুক্তরাষ্ট্রের অধিবাসী গ্লাডউইন জেব ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন৷ তাঁর মেয়াদকাল ছিল – ২৪ অক্টোবর, ১৯৪৫ থেকে ২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৪৬ পর্যন্ত।
১ম মহাসচিব:
এশিয়া থেকে নির্বাচিত = উ থান্ট (মায়ানমার)
আমেরিকা থেকে নির্বাচিত = জ্যাভিয়ার পেরেজ দ্য কুয়েলার (পেরু)
আফ্রিকা থেকে নির্বাচিত = বুট্রোস বুট্রোস-ঘালি (মিশর)
জাতিসঙ্ঘ সনদের ৯৭ অনুচ্ছেদ মোতাবেক মহাসচিবকে “প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা” হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। মহাসচিব পদটি দ্বৈত ভূমিকার অধিকারী – জাতিসঙ্ঘ বা রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রশাসক এবং কুটনৈতিক ও মধ্যস্থতাকারী হিসেবে।
🎯 প্রশ্ন ১৬ :বিশ্বের ১ম যুদ্বপরাধ আদালত কোনটি?
গণহত্যা, মানবতা বিরোধী যুদ্বপরাধের বিচার করে কোনটি?
ক। জাতিসংঘ
খ। আন্তর্জাতিক আদালত
গ। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত
ঘ। নুরেমবার্গ ট্রায়াল
ফাঁদ: আন্তর্জাতিক আদালত, নুরেমবার্গ ট্রায়াল
উত্তর: আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত

🎯 প্রশ্ন ১৭ :NATO ভুক্ত মুসলিম দেশ কতটি?
a.2
b.1
উত্তর :: ২ টি
ব্যাখ্যা::: NATO ভুক্ত মুসলিম দেশ গুলি হলো Turkey & Albania.

🎯 প্রশ্ন ১৮ : ‘স্ট্যাটিউট অফ দ্যা কোর্ট’ চুক্তির মাধ্যমে গঠিত হয় –
ক। আন্তর্জাতিক আদালত
খ। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত

উত্তর: আন্তর্জাতিক আদালত
ব্যাখ্যা:
আন্তর্জাতিক আদালত = ‘স্ট্যাটিউট অফ দ্যা কোর্ট’ চুক্তির মাধ্যমে গঠিত হয়।
আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত = রোম চুক্তি’ (Rome Statue ১৯৯৮) এর মাধ্যমে গঠিত হয়।
EU = ম্যাসটিচট চুক্তির ফলে গঠিত হয়।
কমনওয়েলথ = লন্ডন ঘোষণা অনুযায়ী গঠিত হয়।
ন্যাটো = উত্তর আটলান্টিক চুক্তির মাধ্যমে গঠিত হয়।

🎯 প্রশ্ন ১৯ : প্রথম জিএসপি (GSP) দেয়া শুরু করে –
ক। যুক্তরাষ্ট্র
খ। ইউরোপীয় ইউনিয়ন

ফাঁদ: যুক্তরাষ্ট্র
উত্তর: ইউরোপীয় ইউনিয়ন

ব্যাখ্যা:
GSP এর পূর্ণরূপ হল Generalised system of preference অর্থাৎ অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা । এক কথায় উন্নত বিশ্ব কর্তৃক উন্নয়নশীল দেশসমূহকে রপ্তানির ক্ষেত্রে শুল্কমুক্ত অগ্রাধিকারমূলক সুবিধা দেওয়াকে জিএসপি বলে । GSP সুবিধা দেয়ার লক্ষ্য হচ্ছে : (ক)রপ্তানি আয় বাড়ানো, (খ) শিল্পায়নের প্রসার ঘটানো এবং (গ) প্রবৃদ্ধি বাড়ানো ।

১৯৬৪ সালের UNCTAD এর প্রথম সম্মেলনে GSP সুবিধার বিষয়টি প্রথম আলোচনায় আসে। ১৯৭১ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রথম অনুন্নত দেশসমূহকে জিএসপি’র সুবিধা দেয়া শুরু করে। ১৯৭৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র এ সংক্রান্ত আইন করে এবং ১৯৭৬সাল থেকে বাস্তবায়ন শুরু করে ।

🎯 প্রশ্ন ২০ : European Union গঠিত হয় কোন চুক্তির মাধ্যমে?
a.The Treaty of Rome
b.Maastricht Treaty
উত্তর :: Maastricht Treaty
ব্যাখ্যা ::Maastricht Treaty,1992 এর মাধ্যমে গঠিত হয় European Union.
The Treaty of Rome,1957 :: এর মাধ্যমে গঠিত হয় European Economic Community.

🎯 প্রশ্ন ২১ : প্রাচীনতম গণতন্ত্র প্রচলিত আছে –
ক। ভারতে
খ। গ্রিসে
গ। ব্রিটেনে
ঘ। যুক্তরাষ্ট্রে

ফাঁদ: গ্রিস
উত্তর: ব্রিটেন
ব্যাখ্যা:
ভারত = বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র
ব্রিটেন = বিশ্বের প্রাচীনতম গণতন্ত্র প্রচলিত
গ্রিস = গণতন্ত্রের সূতিকাগার। খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতকে (৫০৮ শতাব্দীতে) গ্রিসের এথেন্সে প্রত্যক্ষ গণতন্ত্র প্রবর্তিত হয়। এটাকেই অ্যাথেনীয় গণতন্ত্রের সূচনাহিসেবে নেওয়া হয়।
যুক্তরাষ্ট্র = যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের একটি মূলনীতি হল প্রতিনিধিত্বমূলক গণতন্ত্র।জনগণকে সংখ্যাগরিষ্ঠের মতামত মেনে নিতে হবে।

গণতন্ত্র (Democracy) শব্দটির উৎপত্তি গ্রীক ‘ডেমোক্রেসিয়া’ শব্দ থেকে (ডেমোস = জনগণ ও ক্রাটোস = ক্ষমতা)। শাব্দিক অর্থ – ‘জনগণের শাসন’। গণতন্ত্র হলো কোন জাতিরাষ্ট্রের বা কোন সংগঠনের এমন একটি শাসনব্যবস্থা যেখানে প্রত্যেক নাগরিকের নীতিনির্ধারণ বা প্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে সমান ভোট বা অধিকার আছে।১৮৬৪ সালে গেটিসবার্গের সেই বিখ্যাত ভাষণে সফল রাষ্ট্র নায়ক আব্রাহাম লিঙ্কন বলেন, ‘Democracy is government of the people, by the people and for the people’.


🎯 প্রশ্ন ২২ : 2nd World War এর ব্রিটেন এর কতজন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন?
a.1 জন
b.2 জন
উত্তর :: ২ জন
ব্যাখ্যা : ২ জন। ফ্রাঙ্কলিন রুজভেল্ট, হ্যারি এস ট্রুম্যান

🎯 প্রশ্ন ২৩ : উদীয়মান অর্থনীতির দেশে বৈদেশিক বিনিয়োগ (FDI) আকর্ষণ ও বৃদ্ধিতে কাজ করে –
ক। IFC
খ। M IGA
গ। ICSID

ফাঁদ: IFC
উত্তর: MIGA

ব্যাখ্যা:
IFC = উন্নয়নশীল দেশে ‘বেসরকারি খাতে’ বিনিয়োগ বৃদ্বিতে কাজ করে।
M IGA = উদীয়মান অর্থনীতির দেশে ‘বৈদেশিক বিনিয়োগ’ (FDI) আকর্ষণ ও বৃদ্বিতে কাজ করে।
ICSID = সরকার এবং বিদেশী বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ‘বিনিয়োগ বিরোধ নিষ্পত্তি’ করতে কাজ করে।

🎯 প্রশ্ন ২৪ : মুদ্রার বিনিময় হার স্থিতিশীল রাখতে কাজ করে –
ক। IDA
খ। WB
গ। IMF

ফাঁদ: WB
উত্তর: IMF

ব্যাখ্যা:
IMF = মুদ্রার বিনিময় হার স্থিতিশীল রাখতে কাজ করে।
IDA = IDA এর ঋণকে Soft loan window বলা হয়। কারণ IDA সহজ শর্তে দীর্ঘমেয়াদী ঋণ দেয়।

Acronym:
IMF ( International Monetary Fund)
IFC (International Finance Corporation)
IDA (International Development Association)
M IGA (Multilateral Investment Guarantee Agency)
ICSID (International Centre for Settlement of Investment Disputes)

🎯 প্রশ্ন ২৫ : বিশ্বব্যাংকের প্রধান ঋণ অর্থ প্রদানকারী সংস্থা কোনটি?
ক। IMF
খ। IBRD
গ। বিশ্বব্যাংক গ্রুপ

ফাঁদ: IMF, বিশ্বব্যাংক গ্রুপ
উত্তর: IBRD

ব্যাখ্যা:
বিশ্বব্যাংকের প্রধান ঋণ অর্থ প্রদানকারী সংস্থা = IBRD
বিশ্ব ব্যাংক বলতে বুঝায় = IBRD কে
তবে বিশ্বব্যাংক গঠিত হয় = ২ টি প্রতিষ্ঠান নিয়ে। যথা: IBRD ও IDA
Five Institutions, One Group বলা হয় = বিশ্বব্যাংক গ্রুপকে
বিশ্বব্যাংক গ্রুপ গঠিত হয় = ৫ টি প্রতিষ্ঠান সমন্বয়ে (IBRD, ICSID, IDA, IFC, MIGA)
NB: আদ্যাক্ষর অনুযায়ী মনে রাখুন!
IMF = অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বৃদ্বি, মুদ্রার বিনিময় হার স্থিতিশীল রাখতে ও বানিজ্য ঘাটতি শোধরাতে আর্থিক সহযোগিতায় দান করে।

🎯 প্রশ্ন ২৬ : একক রচনা হিসেবে বাংলা সাহিত্যের প্রথম গ্রন্থ কোনটি?
ক) চর্যাপদ খ) শ্রীকৃষ্ণককীর্তন কাব্য
গ) ডাকার্নব ঘ) লাইলি মজনু
প্রশ্ন ফাঁদঃ চর্যাপদ তো কেউ একা রচনা করেনি। আবার যারা প্রশ্নটি ভালোভাবে দেখেছেন তাদের কেউ কেউ অতি চালাকি করে ভেবে নিবেন “একক রচনা হিসেবে প্রথম ” কথাটি শুধু নার্ভাস করার জন্যই বোধহয় দিল। কিন্তু না, প্রশ্নে যথেষ্ট কারণ আছে। সঠিক উত্তর হবে খ) শ্রীকৃষ্ণককীর্তন কাব্য।

🎯 প্রশ্ন ২৭ : ব্রিটিশ কমনওয়েলথ প্রতিষ্ঠিত হয় –
ক। ১৯৩১
খ। ১৯৪৯
ফাঁদ: ১৯৪৯
উত্তর: ১৯৩১
ব্যাখ্যা:
কমনওয়েলথ প্রতিষ্ঠিত হয় =১৯৪৯
ব্রিটিশ কমনওয়েলথ প্রতিষ্ঠিত হয় = ১৯৩১

🎯 প্রশ্ন ২৮ :ইতিহাসের সর্ববৃহৎ সামুদ্রিক যুদ্ধ –
ক। ক্রুসেড
খ। ২য় বিশ্বযুদ্ধ
গ। নরম্যান্ডির যুদ্ধ
উত্তর: নরম্যান্ডির যুদ্ধ
ব্যাখ্যা:
ক্রুসেড = সর্বাপেক্ষা দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধ
২য় বিশ্বযুদ্ধ = সর্বাপেক্ষা ব্যয়বহুল যুদ্ধ, সভ্য সমাজের সবচেয়ে বড় আর ধ্বংসাত্নক যুদ্ধ
নরম্যান্ডির যুদ্ধ = সর্ববৃহৎ সামুদ্রিক যুদ্ধ

🎯 প্রশ্ন ২৯ : মধ্যপ্রাচ্য এ পর্যন্ত তেল অস্ত্র ব্যবহার করে কতবার?
a.1
b.2
c.3
d.4
ফাদ: ১ বার
উত্তর :: তিন বার ( ১৯৭৩, ১৯৮১, ১৯৮৬)

====  কেমন হতে পারে বিসিএস প্রিলিমিনারী ও চাকরির পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁদ?  =====

🎯 প্রশ্ন ৩০ : বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দিয়েছে কে? ভারত/ভূটান?
→ Correct Answer: ভারত(প্রচলিত উত্তর)। বর্তমান সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী–ভুটান।
🎯 প্রশ্ন ৩১ : রঙিন টেলিভিশন হতে ক্ষতিকর কোন রশ্মি বের হয়? মৃদু রঞ্জন রশ্মি /গামা রশ্মি?
→ Correct Answer: বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যায় সঠিক উত্তর মৃদু রঞ্জন রশ্মি । প্রচলিত উত্তর গামা রশ্মি।
🎯 প্রশ্ন ৩২ : কোন প্রোগামটি সি ড্রাইভে থাকে? মাই ডকুমেন্ট/ উইন্ডোজ?
→ Correct Answer: দুটোয় । তবে উইন্ডজ বেশি গ্রহণযোগ্য । সি ড্রাইভ প্রচলিত ।
🎯 প্রশ্ন ৩৩ : সার্ভারের সাথে যুক্ত কম্পিউটার কে কি বলে? ওয়ার্ক স্টেশন/ হোস্ট?
→ Correct Answer: ওয়ার্ক স্টেশন । আর সার্ভার কেন্দ্রের কম্পিউটারকে বলে হোস্ট
🎯 প্রশ্ন ৩৪ : কম্পিউটারের গতি মাপা হয়- সেকেন্ড/ ন্যানোসেকেন্ড?
→ Correct Answer: ন্যানোসেকেন্ড
🎯 প্রশ্ন ৩৫ : স্বাধীনতার ঘোষনা পত্র জারি করা হয় কত তারিখে? ১০ এপ্রিল, ১৯৭১/১৭ এপ্রিল, ১৯৭১
→ Correct Answer: ১০ এপ্রিল, ১৯৭১
🎯 প্রশ্ন ৩৬ : ধান গবেষনা ইন্সিটিউট কোথায়? গাজীপুর না ম্যানিলা?
→ Correct Answer: ম্যানিলা । আর বাংলাদেশের হলে গাজীপুর
🎯 প্রশ্ন ৩৭ : ঢাকা বাংলার রাজধানী হয় কতবার? ৪/৫?
→ Correct Answer: ৫বার। (১৬১০, ১৬৬০, ১৯০৫, ১৯৪৭, ১৯৭১)
🎯 প্রশ্ন ৩৮ : বাক্যের শেষে কয়টি যতি চিহ্ন বসে ৩ না ৪?
→ Correct Answer: ৪টি । ( ।, ২ দাঁড়ি, ? !)
🎯 প্রশ্ন ৩৯ : চিনি কল….১৭/১৫?.
→ Correct Answer: ১৫টি ( অর্থনেতিক সমীক্ষা- ২০১৬)
🎯 প্রশ্ন ৪০ : সোভিয়েত ইউনিয়ন ভাঙ্গনের পূর্বে বিশ্ব ব্যবস্থা ছিল?এক মেরুকেন্দ্রিক না দ্বিমেরু কেন্দ্রিক?
→ Correct Answer: দ্বিমেরু কেন্দ্রিক
🎯 প্রশ্ন ৪১ : বিলিরুবিন তৈরি হয় কোথায়? প্লিহা/ যকৃত?
→ Correct Answer: তৈরি হয় : যকৃতে আর সঞ্চিত থাকে: প্লীহায়
🎯 প্রশ্ন ৪২ : পার্বত্য চট্টগ্রামে কয় ধরণের উপজাতি বসবাস করে ? ১১/১২ ?
→ Correct Answer: ১২টি
🎯 প্রশ্ন ৪৩ : বাংলাদেশে উপজাতির সংখ্যা কত ? ৪৫/৪৮ ?
→ Correct Answer: ৪৫ টি।
🎯 প্রশ্ন ৪৪ : কোন দেশের মুদ্রায় বিটেনের রানীর ছবি আছে? কানাডা / বেলজিয়াম?
→ Correct Answer: কানাডা ।
🎯 প্রশ্ন ৪৫ : কমনওয়েলথ এর সদস্য কত?৫২/৫৩?
→ Correct Answer:৫২
🎯 প্রশ্ন ৪৬ : ইইউ এর বর্তমান সদস্য কত ? ২৭ /২৮ ?
→ Correct Answer: ২৮ (যুক্তরাজ্য বেরিয়ে যেতে ২বছর লেগে যেতে )
🎯 প্রশ্ন ৪৭ : ‘করোনার স্টোন অব পিস’ কোথায় অবস্থিত? হাইতিতে /জাপানে?
→ Correct Answer: জাপানে (হাইতিতে করোনার স্টোন চার্চ আছে আর জাপানে করোনার স্টোন পিস।)
🎯 প্রশ্ন ৪৮ : যুক্তরাষ্ট্র কবে UNESCO থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয়?? ১৯৮৪/১৯৮৫?
→ Correct Answer: ১৯৮৫ । ফিরে আসে ২০০৩
🎯 প্রশ্ন ৪৯ : হোম পেইজ মানে কি? তথ্য পরিবেশনা/ওয়েব সার্ভার/বিশেষ তথ্য?
→ Correct Answer:তথ্য পরিবেশনা
🎯 প্রশ্ন ৫০ : এশিয়ার দক্ষিণভাগ দিয়ে অতিক্রম করেছে– কর্কটক্রান্তি/ বিষুব রেখা?
→ Correct Answer: বিষুব রেখা
🎯 প্রশ্ন ৫১ : সাংবিধানিক পদ এবং প্রতিষ্ঠান কয়টি?
→ Correct Answer: সাংবিধানিক পদ ৯টি, সাংবিধানিক সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান ৭ টি।
🎯 প্রশ্ন ৫২ : মৈমনসিংহ গীতিকা সংগ্রহ কে করে- দীনেশচন্দ্র সেন/ চন্দ্রকুমার দে?
→ Correct Answer: সংগ্রহ করেন — চন্দ্রকুমার দে। আর সম্পাদনা করেন — দীনেশচন্দ্র সেন।
🎯 প্রশ্ন ৫৩ : সমুদ্রের পানি নীল দেখায় আপতিত সূর্যের আলোর–বিক্ষেপন/প্রতিসরণ?
→ Correct Answer:বিক্ষেপন
🎯 প্রশ্ন ৫৪ : বাংলাদেশের জিডিপিতে (বর্তমানে) কোন খাতের অবদান সবচেয়ে বেশি? কৃষি/শিল্প/সেবা?
→ Correct Answer:সেবা।
🎯 প্রশ্ন ৫৫ : বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক জোট কোনটি?
A) EU B. WTO
→উত্তর : A
ব্যাখ্যা : সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক জোট — ইইউ।
সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক গোষ্ঠী — WTO.
🎯 প্রশ্ন ৫৬ : বাংলায় টি.এস এলিয়টের কবিতার প্রথম অনুবাদক কে ?
A) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর B. বিষ্ণু দে
→উত্তর : রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
ব্যাখ্যা : বিষ্ণু দে অনুবাদ টা ১৯৫০ সালের পরে কিন্তু রবি ঠাকুর মারা যান ১৯৪১ সালে।
🎯 প্রশ্ন ৫৭ : ‘গাহি সাম্যের গান, ধরনীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান’ – পঙিক্তটি নজরুলের কোন কবিতার অংশ?
A. সাম্যবাদী B. জীবন- বন্দনা
→উত্তর : জীবন – বন্দনা।
ব্যাখ্যা : এটা জীবন বন্দনা কবিতার অংশ আর সাম্যবাদী কবিতায় কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন, “গাহি সাম্যের গান- যেখানে আসিয়া এক হয়ে গেছে সব বাধা-ব্যবধান!”

🎯 প্রশ্ন ৫৮ : মোট সেক্টর কমান্ডার কতোজন?
ক) ১৬ জন। খ) ১৯ জন।
উ : ১৬ জন ( সোর্স : স্বাধীনতার দলিলপত্র)
🎯 প্রশ্ন ৫৯ : বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ??
A) China B. Usa
উত্তর : USA
ব্যাখ্যা : জিডিপিতে শীর্ষ — USA আবার অন্যদিকে পিপিপিতে শীর্ষ — China. বৃহত্তম অর্থনীতি বলতে সাধারণত জিডিপির ভিত্তিতে বুঝানো হয় তাই অপশনে দুইটাই থাকলে USA অপশনটাই বেটার।
🎯 প্রশ্ন ৬০ : মুসলিম নারী জাগরনের কবি কে?
ক) বেগম রোকেয়া খ) শামসুন্নাহার
→উত্তর : শামসুন্নাহার।
ব্যাখ্যা : বেগম রোকেয়া কবি ছিলেন না। বেগম রোকেয়া ছিলেন মুসলিম নারী জাগরণের অগ্রদূত।
🎯 প্রশ্ন ৬১ : সংসার উদ্যানে পুষ্প অপেক্ষা______বেশী।
ক) কণ্টক খ) কীট
→উত্তর : কণ্টক।
ব্যাখ্যা : পুষ্প = ফুল। ফুলের সাথে কণ্টক শব্দটাই যায়।
🎯 প্রশ্ন ৬২ : CPU তে কোনটি থাকে?
ক) register
খ) memory
উত্তর : register
ব্যাখ্যা : Register,CPU এর একটা অংশ,যেকোন ডাটা প্রসেসিং রেজিস্টারের মাধ্যমে অপারেট হয় অপরপদিকে মেমরি CPU এর বাইরেও থাকতে পারে।
🎯 প্রশ্ন ৬৩ : Control unit –
A) performs mathematical
operations
B. performs logical operations
C) directs the movement of
electrical signals
উত্তর : B.
ব্যাখ্যা : প্রদত্ত অপশনের সব কাজই কন্ট্রোল ইউনিট করে তবে মেইনলি এটা লজিক্যাল অপারেশংগুলোই করে।
🎯 প্রশ্ন ৬৪ : ভিটামিন সি বেশি আছে কোনটিতে?
ক) পেয়ারা
খ) আমলকি
উত্তর : আমলকি।
ব্যাখ্যা : আমলকিতে প্রতি ১০০ গ্রামে ৪৪৫ মিগ্রা ভিটামিন সি আছে আর অপরদিকে প্রতি ১০০ গ্রাম পেয়ারায় ভিটামিন সি আছে ২০০ মিগ্রা।

🎯 প্রশ্ন ৬৫ : আপেল এ কোন এসিড?
ক) ম্যালিক এসিড
খ) স্যালিক এসিড
উত্তর : ম্যালিক এসিড।

🎯 প্রশ্ন ৬৬ : সেন্টমার্টিন দ্বীপের আয়তন কত?
ক) ৮ বর্গকিমি
খ) ৯ বর্গকিমি
উত্তর : ৮ বর্গকিমি। (উইকিপিডিয়া)

🎯 প্রশ্ন ৬৭ : কোন বোমায় মানুষ মরে কিন্তু ঘরবাড়ির ক্ষতি হয় না?
ক) নাপাম বোমা
খ) নিউট্রন বোমা
উত্তর : নিউট্রন বোমা।
ব্যাখ্যা :
নিউট্রন বোমা : বিজ্ঞানের সর্বশেষ ধ্বংসকারী আবিষ্কার হলো এই নিউট্রন বোমা। তৈরি করেছে যুক্তরাষ্ট আর ফ্রান্স। এর বৈজ্ঞানিক নাম এনহ্যান্স রেডিয়েশন ওয়াপন। নিউট্রন রেডিয়েশন অস্ত্র নামেও পরিচিত। এর সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো এটি ঘর-বাড়ি, গাছপালার কোনো ক্ষতি করে না। শুধু প্রাণী ধ্বংস করে। এক থেকে দুই কিলোটনের একটি বোমার সাইজ। প্রচণ্ড বিস্ফোরণ আর তাপের সৃষ্টি করে। তাই এটি ১৩০-৩৫০ মিটার এলাকা ধ্বংস করে দিতে পারে।
আর অন্য কিছু ধ্বংস করে ১-২ কিলোমিটার ব্যাসার্ধে। মূলত পারমাণবিক বোমার বিকল্প হিসেবেই এটি তৈরি করা হয়েছে তাই এর ধ্বংসলীলা শুধু প্রাণীদের ওপরই হয় তবে অবকাঠামোর কোনো পরিবর্তন করে না। নিউট্রন বোমাতে নিউট্রন আর গামা রশ্মি বের হয়ে আসে। আর গামা রশ্মি বা এক্স-রে যে কোনো প্রাণীর জন্য চরম ক্ষতিকর। অতিরিক্ত মাত্রায় বের হয়ে আসার কারণে প্রাণীর জৈবিক দেহ মরে যায়। নিউট্রন বোমাতে ব্যবহৃত হয় ইউরেনিয়াম আর লিড আর তার সঙ্গে অল্প পরিমাণে ট্রিটটিয়াম। ১৯৫৮ সালে স্যামুয়েল টি কোহেন এই ধরনের বোমার ধারণা প্রথম দেন। ১৯৬৩ সালে নেভাদার মাটির নিচে প্রথম পরীক্ষা করায়। তবে জিমি কার্টার ১৯৭৮ সালে এর উৎপাদন বন্ধ করে দেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যান ১৯৮১-তে এর পুনঃউৎপাদন শুরু করেন।
নাপাম বোমা : এটা আগুন সৃষ্টি করে,ভিয়েতনাম যুদ্ধে এই বোমার ব্যাপক ব্যবহার হয়েছিল,এই বোমায় ওখানে গ্রামের পর গ্রাম জ্বলছিল।

🎯 প্রশ্ন ৬৮ : কাজী নজরুল বাকরুদ্ধ হয় কয় বছর বয়সে?
ক) ৪০ বছর
খ) ৪৩ বছর
উত্তর : ৪৩ বছর।
ব্যাখ্যা : কাজী নজরুল ইসলাম ১৯৪২ সালে বাকরুদ্ধ হন যখন কবির বয়স ৪৩ ছিল।

🎯 প্রশ্ন ৬৯ : ঢাকা সিটিতে আসন সংখ্যা কয়টি?
ক) ১৫ টি
খ) ২০ টি
উত্তর : ১৫ টি।
ব্যাখ্যা : ঢাকা জেলায় আসন সংখ্যা ২০ টি কিন্তু সিটিতে আসন সংখ্যা ১৫ টি।

🎯 প্রশ্ন ৭০ : বাংলা ভাষায় যতি বা ছেদচিহ্ন মোট কয়টি?
ক) ১১ টি
খ) ১২ টি
উত্তর : ১২ টি।

🎯 প্রশ্ন ৭১ : মোট বীর উত্তম কতজন?
ক) ৬৮ জন
খ) ৬৯ জন
উত্তর : ৬৯ জন।
ব্যাখ্যা : মোট বীর উত্তম ৬৯ জন কিন্তু স্বাধীনতাযুদ্ধে অবদানের জন্য মোট ৬৮ জনকে বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত করা হয়েছিল। সর্বশেষ বীর উত্তম প্রতীক পেয়েছেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিল আহমেদ (২০১০) মরণোত্তর। বঙ্গবন্ধুকে ১৯৭৫ সালের আগস্টে বাঁচানোর চেষ্টার জন্য তাঁকে ২০১০ সালে মরণোত্তর বীর উত্তম পদক প্রদান করা হয়।

🎯 প্রশ্ন ৭২ : ২৫ এপ্রিল,২০১৫ সালে নেপালে ভয়ংকর ভূমিকম্পের মাত্রা কতো ছিলো?
ক) ৭.৮
খ) ৭.৯
উত্তর : ৭.৮
ব্যাখ্যা : কিছু জায়গায় ৭.৯ উল্লেখ থাকলেও মূলধারার প্রায় সব মিডিয়াতেই ৭.৮ উল্লেখ আছে।
কেমন হতে পারে বিসিএস প্রিলিমিনারী ও চাকরির পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁদ?

৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার English অংশের সমাধান

1. Correctly spelt word.
Answer: heterogeneous

2. Among is a preposition that is used when…..
Answer: more than two

3. Which period is known as the “The golden age of English literature”?
Answer: The Elizabethan age

4. Which one is the correct indirect narration?
Answer: No correct answer

5. Which word is closest in meaning to “Franchise”?
Answer: Privilege

6. ‘Once in a blue moon’ means-
Answer: very rarely.

7. ‘Jacobean Period’ of English Literature refers to-
Answer: 1603-1625

8. A retired officer lives next door. Here the underlined word is used as a/an:-
Answer: participle

9. Eight men were concerned___ the plot.
Answer: with

10. When the water___ it turns into ice.
Answer: freeze

11. Which one is the correct antonym of ‘frugal’?
Answer: extravagant

12. ‘Take the bull by the horse’ means. Answer:

13. I still have ___ money.
Answer: little

14. Compound structure of “Though he is poor, he is honest”.: He is poor but honest

15. “Alone, alone, all, all alone…….”
Answer: The Rime of the Ancient Mariner

16. “For God’s sake hold your tongue and let me love”.
Answer: John Donne

17. Tourists____their reservations well in advance if they want to fly to Cox’s Bazar. Answer: had better get

18. The sun went down.
Answer: adverb

19. Author of ‘Man and Superman’.
Answer: G.B. Shaw

20. The most famous satirist in English literature is—
Answer: Jonathan Swift

21. Plural of ‘louse’.
Answer: lice

22. Choose the correct sentence.
Answer: He refrained from taking any drastic action

23. Which one of the following words is in singular form?
Answer: radius

24. Passive voice of “It is impossible to do this.”
Answer: This is impossible to done

25. Who wrote the epic?
Answer: John Milton

26. The literary term ‘euphemism’ means.
Answer: in offensive expression

27. Mutton is….
Answer: Material noun

28. Reading is…..
Answer: Gerund

29. Distributive pronoun.
Answer: either

30. Who is not Victorian poet?
Answer: Alexander Pope

31. A speech of too many words is called-.
Answer: A verbose speech

32. ‘Strike while the iron is hot’ is an example of-
Answer: Adverbial clause

33. The play ‘The Spanish Tragedy’ is written by-
Answer: Thomas Kyd

34. Famous Indian famous novelist.
Answer: R. K.Narayan

35. The word ‘Panegyric’ means.
Answer: elaborate praise

৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার English অংশের সমাধান


৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার সাধারণ জ্ঞান অংশের সমাধান

১. ন্যানো স্যাটেলাইট – ব্রাক অন্বেষা
২. মায়ানমারের সাথে সমুদ্রসীমা – Permanent tribunal for the law of the sea
৩. সর্বাধিক পরিমাণ অর্থের আমদানি – চীন
৪. মুজিবনগর সরকারের ত্রান মন্ত্রী – কামরুজ্জামান
৫. ভাষা আন্দোলন – বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ
৬. ১৯৫৪ এর প্রাদেশিক পরিষদ নির্বাচনে যুক্ত ছিলেন না- সলিমুল্লাহ
৭. জুম চাষ- খাগড়াছড়ি
৮. চাকমা জনগোষ্ঠী বেশি বাস করে – রাঙ্গামাটি
৯. প্রথম আদমশুমারি – ১৯৭৪
১০. মোট দেশজ উৎপাদনে কৃষি খাতের অবদান – ক্রমহ্রাসমান
১১. বিশেষায়িত ব্যাংক – বাংলাদেশ কৃষিব্যাংক
১২. সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান – ২৭ ধারা
১৩. ইকোনমিক রিভিউ ২০১৬ অনুযায়ী শিশুমৃত্যু হার – ২৮
১৪. ৭ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা অনুযায়ী গড় প্রবৃদ্ধি – ৭.৪০
১৫. ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাংলাদেশের গড় মূল্যস্ফীতি ছিল – ৬.০%
১৬. বাংলাদেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনে জ্বালানি হিসেবে সর্বাধিক ব্যবহৃত হয় : প্রাকৃতিক গ্যাস
১৭. প্রাচীন বাংলার হরিকেল জনপদ অঞ্চলভুক্ত এলাকা : চট্টগ্রাম ‘
১৮. নিম্নের মোঘল সম্রাটদের মাঝে কে প্রথম আত্মজীবনী লিখেছিলেন : বাবর
১৯. ঐতিহাসিক ছয় দফা ঘোষণা করা হয় ১৯৬৬সালের – ফেব্রুয়ারিতে
২০. গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সংবিধান মতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের নিয়োগের মেয়াদকাল :৫ বছর.
২১. দেশের কোন এলাকাতেই ভোটার হননি এমন ব্যক্তি সংসদ নির্বাচনে: কোনোভাবেই প্রার্থী হতে পারবেন না *
২২. কোনটি স্থানীয় সরকার নয় : পল্লী বিদ্যুৎ
২৩. আইন প্রণয়নের ক্ষমতা – জাতীয় সংসদের
২৪. সমাজের শিক্ষিত শ্রেণীর যে অংশ সরকার না কর্পোরেট গরূপে থাকে না কিন্তু সরকারের উপর প্রভাব বিস্তার করার ক্ষমতা রাখে- সুশীল সমাজ
২৫. গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচিত হওয়ার ন্যূনতম বয়স : ৩৫ বছর
২৬. বাংলাদেশের জাতীয় আয় গণনায় দেশের অর্থনীতিকে কয়টি ভাগে ভাগ করা হয় :
২৭. টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে কে প্রথম ডবল সেন্ঞ্চুরী করেন : মুশফিক
২৮. নিচের কোনটি নাগরিকের দায়িত্ব: রাস্তায় ট্রাফিক আইন মেনে চলা
২৯. মায়ানমারের সাথে বাংলাদেশের কয়টি জেলার সীমান্ত আছে: ৩ টি
৩০. পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তচুক্তি কত সালে স্বাক্ষরিত হয় ;১৯৯৭

======== আন্তর্জাতিক অংশের সমাধান  =========

১. ফিফা ২০২২ হবে- কাতার
২. ওআইসির দাপ্তরিক ভাষা- তিনটি (আরবি+ইংরেজি+ ফ্রেন্স)
৩. এসডিআইকে বলা হতো- তারকা যুদ্ধ (সমালোচকরা বলতেন)
৪. কপ-২১এ অংশগ্রহণকারী জাতি- ১৯৬ (১৯৫দেশ + ইইউ)
৫. রোহিঙ্গারা নাগরিকত্ব হারায়- ১৯৮২ সালে
৬. অক্টোবর বিপ্লবের নেতৃত্ব- লেনিন দিয়েছেন
৭. দুই পরাশক্তির মাঝের দেশ- বাফার স্টেট
৮. পিংপং হচ্ছে- টেবিল টেনিস
৯. বিআরআই প্রস্তাবক- চিন
১০. জাতিসংঘের সহযোগী সদস্য নয়- আসিয়ান
১১. সার্কের সদরদপ্তর- কাঠমাণ্ডু, নেপাল
১২. ১৯৯৫ গোল্ডেন জুবেলি- জাতিসংঘ (১৯৪৫ সালে প্রতিষ্ঠিত। ৯৫ এ ৫০ বছর)
১৩. অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশন্যাল- মানবাধিকার সংগঠন
১৪. ইউএনএইচসিআর সদরদপ্তর -জেনেভা
১৫. ভারতের প্রাচীন রাজনৈতিক দল- ন্যাশনাল কংগ্রেস
১৬. ওজনস্তর রক্ষা বিষয়ক চুক্তি- মন্ট্রিল প্রোটোকল
১৭. নৈরাজ্য হলো- নব্য মার্কসবাদ
১৮. প্রাকৃতিক আইনের উদ্ভব-জন লক, হবসন হুগো, গ্রেসিয়াস এর লেখনী থেকে
১৯. ইমপেরিয়ালিজম, দ্য হাইয়েস্ট স্টেশ অব ক্যাপিটালিজম- লেনিন লিখেছেন
২০. গুয়ামের গভর্নর- অ্যাডি ক্যালভো

৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার সাধারণ জ্ঞান অংশের সমাধান


৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার বাংলা অংশের সমাধান



১) ব্যক্ত এর বিপরীত শব্দ — গূঢ়
২) বাংলা কৃৎ প্রত্যয়— মোড়ক।
৩) কোনটি সার্থক বাক্যের গুণ নয়? –আসক্তি।
৪) বীরবল ছদ্ম নাম — প্রমথ চৌধুরী।
৫) মুখরা রমনী বশীকরণ — অনুবাদ নাটক।
৬) চন্দ্ররা — রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
৭) পূর্বাশা এর সম্পাদক — সঞ্জয় ভট্টাচার্য।
৮) কে ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের শিক্ষক — রামরাম বসু।
৯) মেঘনাদ বধ কাব্য — ১৮৬১ সালে।
১০) Null and void এর পরিভাষা —বাতিল।
১১) কোন বানান শুদ্ধ? – এর সঠিক উত্তর নেই।।
১২) গিন্নি – অর্ধ তৎসম।
১৩) শ্রদ্ধা শব্দের সঠিক প্রকৃতি প্রত্যয় —
শ্রুৎ + ধা + অ+ আ।
১৪) পুষ্পসৌরভ – তৎপুরুষ।
১৫) সূর্য শব্দের সমার্থক – অর্ক।
১৬) হ্ম = হ+ম।
১৭) সদ্যোজাত — সদ্যঃ+ জাত।
১৮) শ্রীকৃষ্ণকীর্তন — নাট গীতি।
১৯) সন্ধ্যাভাষা — চর্যাপদ।
২০) চন্দ্রাবতী — কাব্য।
২১) বিদ্যাপতি — মিথিলা।
২২) বিদ্যাসাগরের আত্নজীবনী —আত্মচরিত।
২৩) মতিচূর — প্রবন্ধ।
২৪) জসীম উদ্দিনের রচনা — ঠাকুরবাড়ির আঙিনা।
২৫) কোন বানানটি শুদ্ধ — ত্রিভুজ।
২৬) কোনটি অপপ্রয়োগ — একত্রিত।
২৭) বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত মৌলিক স্বরধবনি — ৭ টি।
২৮) বাবা — তুর্কি শব্দ।
২৯) আমার ঘরের চাবি —- লালন শাহ।
৩০) অগ্নিবীণা কাব্যের প্রথম কবিতা— প্রলয়োল্লাস।
৩১) নীলদর্পন নাটক —- ঢাকা থেকে প্রকাশিত।
৩২) রবীন্দ্রনাথের কাব্যগ্রন্থ —
শেষলেখা।
৩৩) নদী ও নারী উপন্যাসের রচয়িতা
—- হুমায়ুন কবির।

৩৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার বাংলা অংশের সমাধান

Thursday, October 25, 2018

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৬ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-6

সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার বর্তমান বাজারের অত্যন্ত চাহিদাসম্পন্ন পেশা


যেহেতু সব ব্যবসায়ীপ্রতিষ্ঠানগুলোকে এখন ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের দিকে অবশ্যই ঝুঁকতে হচ্ছে, এবং ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পার্ট হচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং। সেই কারণে বর্তমান যুগে অত্যন্ত চাহিদাসম্পন্ন একটি ক্যারিয়ার হচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার। একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারকে কি কি কাজ করতে হয়, সেটি এবার জানানোর চেষ্টা করছি। একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব শুধুমাত্র প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করার মধ্যে সীমাবদ্ধ না, এটুকু কাজের জন্য একটা প্রতিষ্ঠান সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারকে নিযুক্ত করে না, বিষয়টি মাথায় রাখা উচিত। একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের প্রতিদিন কি কি কাজ করতে হয়, সেই বিষয়ে কিছু আলোচনা করব এবার-

১) সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সাইটগুলোতে সব সময় আপডেট থাকতে হয়। অ্যানগেজিং কনটেন্ট, ছবি, ভিডিও, ব্লগ লিংক, বিভিন্ন কমেন্টে উত্তর দেয়ার মাধ্যমে আপডেট রাখা সবচেয়ে প্রথম কাজ। আর তাই সব ধরনের কনটেন্ট তৈরির দক্ষতা থাকাটা জরুরি। সব ধরনের কনটেন্ট বলতে বোঝাচ্ছি, শর্ট মেসেজ, ইমেজ তৈরি, ভিডিও তৈরি সম্পর্কে দক্ষতা থাকতে হবে।

২) সেই বিজনেস প্রতিষ্ঠানের ব্রান্ডিং হয়, এ রকম ব্লগিংয়ের পরিকল্পনা, ব্লগ পাবলিশ করা, ব্লগ লিংককে প্রমোট করার কাজটিও সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। ব্লগিংয়ের দক্ষতাটা সব ধরনের ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের জন্য সবচেয়ে বেশি জরুরি। ডিজিটাল মার্কেটারকে অবশ্যই ব্লগিং দক্ষতাটা থাকতেই হবে।

৩) নিয়োগপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানটির প্রোডাক্ট কিংবা সার্ভিসটি সম্পর্কিত কোন ধরনের কিওয়ার্ডগুলো নিয়ে আলোচনা হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়াতে, এবং সেই প্রতিষ্ঠানের ব্রান্ডটি নিয়ে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে কী ধরনের আলোচনা হয়, কেউ রিকমেন্ড কিংবা ম্যানশন করে কিনা, সেই বিষয়গুলো প্রতিদিন অ্যানালাইস করা একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের অত্যন্ত জরুরি কাজ।

৪) কম্পিটিটরদের কমিউনিটিগুলো থেকে এবং সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লয়েন্সারদের পোস্ট এবং সেখানের কমেন্টগুলো থেকে অ্যানালাইস করে কনটেন্ট প্লান তৈরি করা , সেই অনুযায়ী কনটেন্ট ক্যালেন্ডার প্রস্তুত করা একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের অন্যতম দক্ষতা এবং প্রতিদিনের শিডিউল কাজ।

৫) সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারকে তার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস সম্পর্কিত অন্যদের পোস্টগুলো নিয়মিত স্টাডি করতে হয়, সেগুলোকে ফিল্টারিং করে নিজের জন্যও কনটেন্ট তৈরি করতে হয়। তাই স্টাডির কাজটিও প্রতিদিনের জরুরি দায়িত্ব। শুধু নিজের মাথা থেকে পোস্ট করলেই হবে না।

৬) একই কমিউনিটির মেম্বারদের সঙ্গে সম্পর্ক মেইনটেইন করাটাও একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের কর্তব্য। এটার কারণে আপনার ব্রান্ডের ব্যাপারে ট্রাস্ট অর্জন হয় এবং অনেক জায়গাতেই আপনার ব্রান্ডকে রেফার করা হয়। এ সম্পর্ক মেইনটেইন হতে পারে, ফেসবুক ফ্রেন্ডশিপের মাধ্যমে, কমিউনিটির বিভিন্ন সেমিনার, ওয়ার্কশপগুলো অবশ্যই উপস্থিত হতে হবে, সম্ভব হলে নিজেই উদ্যোগী একই কমিউনিটি বিভিন্ন মানুষের নিয়ে বিভিন্ন প্রোগ্রামের আয়োজন করে সবার সঙ্গে সম্পর্ক মেইনটেইন করা সম্ভব হবে।

৭) ব্রান্ড সম্পর্কিত নেগেটিভ ইস্যুগুলো কিংবা নেগেটিভ আওয়াজগুলো মনিটরিং করা এবং প্রফেশনাললি মোকাবেলা করা, যাতে ব্রান্ডের অবস্থান অটুট থাকে। এ কাজটিও সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব। একজন অভিজ্ঞ সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার খুব যোগ্যতার সঙ্গেই এ দায়িত্বটুকু পালন করতে পারেন।

৮) কম্পিটিটরদের কমিউনিটি অ্যানালাইস করে ডাটা কালেক্ট করা, বাজারের ডিমান্ডগুলো, সম্ভাব্য ক্রেতাদের মনোস্তাত্ত্বিক বিষয়গুলো সম্পর্কে একটা রিপোর্ট তৈরি করা, সেই অনুযায়ী নতুন নতুন স্ট্যাটেজি তৈরি করতে পারা একজন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের বড় যোগ্যতা। কোনো ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব পেলে এ কাজগুলো অবশ্যই করতে হবে, এবং তা প্রতিদিনকার রুটিন।

ওপরে বর্ণিত ৮টি কাজ করার যোগ্যতা আপনার রয়েছে কিনা সেটি নিজেকে নিয়ে অ্যানালাইস করলেই পেয়ে যাবেন। সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার হিসেবে অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহী হলে কিংবা কোনো চাকরি করতে আগ্রহী হলে ওপরের ৮টি কাজের দক্ষতাগুলো অর্জন করুন। ৮টি পয়েন্ট মনে রাখার সুবিধার্থে বিষয়গুলো ইনফোগ্রাফিক আকারে এখানে শেয়ার করছি।

ফেসবুক মার্কেটিংয়ের সঠিক পদ্ধতিগুলো জেনে নিন, ভুল মার্কেটিং ক্ষতি করছে আপনাকে

ফেসবুকে অনেককে মার্কেটিং করতে দেখি। দেখলেই বোঝা যায়, না বুঝেই মার্কেটিং করছে। বর্তমান যুগে অনেকের মধ্যেই এ ধারণা তৈরি হয়ে গেছে, ফেসবুকে পোস্ট দিলে, অফিসিয়াল পেজে লাইক বাড়লেই ফেসবুক মার্কেটিং হয়ে গেছে।

আবার ফেসবুক পেইড ক্যাম্পেইন যুগ এসে ৫ ডলার খরচ করে ৩০ হাজার মানুষের কাছে পোস্টটিকে পৌঁছাতে পেরেই অনেকে নিজেকে সফল মার্কেটার হিসেবে মনে করার শুরু করছে কেউ কেউ। হয়তো এটুকু করেই অনেকে সফলও হচ্ছে। তবে ২-১টা প্রজেক্ট সফল হওয়া মানেই আপনি মার্কেটার হয়ে গেছেন ভেবে তৃপ্তির ঢেকুর তুললে অনেক বড় ভুল করবেন।

কিছু না জেনেই আপনি সফল হয়েছেন সেটার অনেক কারণ থাকতে পারে-

- প্রোডাক্টটির কম্পিটিটর অনেক দুর্বল

- অলরেডি ব্রান্ড পপুলার হওয়ার কারণেও হয়তো সফল হয়েছে। কিংবা আরও অনেক বিষয় থাকতে পারে। আমাদের এসব কাজের আগে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং বিষয়ে বিস্তারিত শেখা দরকার ও জানা দরকার।

ফেসবুক মার্কেটিং করার আগে আমাদের জেনে নেয়া দরকার, কেন ফেসবুক পেজ তৈরি হয়, কেন পেজে নিয়মিত পোস্ট ফেলতে হয়, সেখান থেকে কীভাবে প্রোডাক্ট সেল হয় (SELL BUY CYCLE) বিষয়টি জানা দরকার।

ব্যবসার জন্য কেন ফেসবুক পেজ তৈরি করা হয়?

মূলত লিড তৈরির উদ্দেশ্যেই ফেসবুক পেজ তৈরি করা হয়। লিড মানে সেল না। লিড মানে সেলের আগের ধাপ। অর্থাৎ সম্ভাব্য ক্রেতা যারা আজ হোক কিংবা পরে হলেও প্রোডাক্টটি কিনবেন। যদি সম্ভাব্য ক্রেতাকে খুঁজে বের করতে চান, তাহলে সেটা জোর করে হবে না। বিভিন্ন মিডিয়া হতে খুঁজে বের করতে হবে আপনার সম্ভাব্য ক্রেতাকে (লিড)।

সে জন্য যা করতে হবে?

- নিজের পেজটিতে মানুষের জন্য কাজে লাগবে এ রকম পোস্ট করে সেই পোস্টটির লিংক অন্যগ্রুপে শেয়ার করতে পারেন।

- মানুষের জন্য কাজে লাগে এ রকম বিভিন্ন আর্টিকেল লিখে সেটি ব্লগে এবং বিভিন্ন গেস্টব্লগিং সাইটে পোস্ট করুন। সেই পোস্টের নিচে ফেসবুক পেজের লিংকটি দিয়ে আসুন।
ওপরের এ পদ্ধতিতে যেসব মেম্বার পাবেন নিজের পেজের কিংবা গ্রুপের জন্য, এরাই হচ্ছে লিড। অর্থাৎ প্রোডাক্টের সম্ভাব্য ক্রেতা।

ফেসবুক পেজের লিড জোগাড় করার আরও কয়েকটি টিপস সংক্ষিপ্তভাবে দিচ্ছি-

১) রিলেটেড গ্রুপগুলোতে নিজের দক্ষতা প্রদর্শন।

ক) কোনো সমস্যা নিয়ে পোস্টে সমাধান দেয়া। যেমন এখন আমি দিচ্ছি।

খ) সেই গ্রুপগুলোতে টিপস রিলেটেড কিংবা উপকারী বিভিন্ন পোস্ট করা।

এ কাজটি করলে সেই গ্রুপের অন্যদের কাছে আপনার একটা ভ্যালু তৈরি হয়, আর সে তখন লিডে পরিণত হয়।

২) নিজের ফেসবুক গ্রুপটাতে নিয়মিত বাণিজ্যিক পোস্টের চাইতে উপকার হয়, এ রকম পোস্ট করা। তাহলে সেই পোস্টগুলো শেয়ার হবে, সেটা দেখে অনেকেই যারা এ টাইপ উপকারী পোস্ট চাচ্ছে, তারা গ্রুপ বা পেইজে জয়েন করবে। এরাই লিড।

৩) ব্লগিং কিংবা গেস্ট ব্লগিংয়ে ফেসবুক পেজ কিংবা গ্রুপের লিংক থাকলে সেখান থেকে যারা আগ্রহী, অর্থাৎ এ গ্রুপ বা পেজে জয়েন করতে আগ্রহবোধ করবে, তারা জয়েন করবে, এরাই লিড।

৪) ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করলেন, সেই ভিডিওতে শেষে দিয়ে নিজের পেজের লিংক দিয়ে দিলেন, আগ্রহীরা পেজে জয়েন করবে, এগুলোই লিড।

৫) কোনো স্লাইড তৈরি করলেন, সেই স্লাইডে ফেসবুক পেজের লিংক দিলেন, যারা সেই পেজে যুক্ত হবে, তাদেরই এ পেজটি প্রয়োজন ছিল। সে জন্য কারও প্ররোচনা ছাড়াই স্বেচ্ছায় পেজে যুক্ত হয়েছে। এরাই লিড।

৬) ফ্রি ই-বুক তৈরি করে সেটি ফ্রি প্রচার করতে পারেন। সেই ই-বুকটিতে ফেসবুক পেজের লিংক শেয়ার করেন। আগ্রহী হলে অর্থাৎ যাদের প্রয়োজন রয়েছে, তারা আপনার পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত হবে। এরাই লিড।

৭) কোনো প্রোগ্রামে স্পিকার হিসেবে গেলেন, বক্তৃতা শেষে নিজের ফেসবুক পেজের লিংক দিয়ে দিলেন, যারা সেটা শুনে সেই পেজে লাইক দেবে, তারাই লিড।

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৬ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-6


লেখক: মো. ইকরাম, পরিচালক, নেক্সাস আইটি।

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৫ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-5

আসুন দেখি কেন সেখানে প্রোডাক্ট বিক্রিতে সফলতা পেয়েছি-


১) প্রোডাক্ট সিলেকশন:

ক) প্রোডাক্ট সিলেকশনটি উপযুক্ত ছিল। এমন প্রোডাক্ট ছিল যা সবার জন্যই অত্যন্ত দরকারী।

খ) প্রোডাক্টটি খুবই আনকমন ছিল যা খুব সহজলভ্য ছিল না।

২) মার্কেটিং:

ক) প্রোডাক্টটি নিয়ে ব্লগিং হয়েছে। ব্লগের কনটেন্টেই টার্গেটেড মানুষের মনের ভেতর নাড়া দেয়ার মতো করেই সব বাক্য লিখা ছিল, সেই ব্লগ পোস্টটিতে।

যেমন: টাইটেল ছিল: “কমিয়ে ফেলুন পরিশ্রম, বাঁচিয়ে ফেলুন মূল্যবান সময়”

গ) পেজটিতে নিয়মিত টিউন দেয়া হয়েছে। সেই টিউনকে আবার প্রতিদিন প্রায় ২০টা পেজে শেয়ার করা হয়েছে।

ঘ) সবার জিজ্ঞাসার উত্তরটিও নিয়মিত প্রদান করা হয়েছে।

ঙ) প্রোডাক্টটির ব্যবহারের বিষয়ে অনুপ্রেরণা দেয়ার মতো ভিডিও তৈরি করা হয়েছে।

আরও যা যা করলে আরও বেশি সফল হওয়া যেত-

১) পেজটিতে অ্যানগেজমেন্ট বৃদ্ধির জন্য কুইজ আয়োজন করা যেত।

২) যারা অনলাইনে পরিচিত ব্যক্তি তাদের দিয়ে এটি ব্যবহার করার ভিডিও তৈরি করে শেয়ার করলে আরও বেশি সফল সেল বৃদ্ধি পাবে।

৩) আরও বেশি ইমেজবেস কনটেন্ট প্রচার করা সম্ভব হলে বিক্রি বৃদ্ধি পাবে।

৪) প্রোডাক্ট যারা কিনে ব্যবহার করছে, তাদের ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরো বেশি পোস্ট করে, সেটি বিভিন্ন গ্রুপে শেয়ার করা উচিত। সে রকম একটি পোস্ট করা হয়েছে।

৫) প্রোডাক্ট কিনলে বিশেষ কোনো ধরনের অফার দিয়ে দেখা যেতে পারে। সেটি হলেও আশা করা যায়, অনেক ভালো ফলাফল পাওয়া যেত।

৬) কমপক্ষে ২০টা গ্রুপে টার্গেট করে সেসব গ্রুপে প্রতিদিন কমপক্ষে দুইবার (সকাল, রাত) করে পোস্ট করা হলে এবং এটি যদি একটানা ১৫ দিন কোনো বিরতি ছাড়া করা যায়, তাহলে আরও বেশি সফল হওয়া যাবে। আশা করি, আপনারাও এটুকু লেখা পড়ে এফ কমার্স বিজনেস শুরু করবেন, এবং উদ্যোক্তা হয়ে উঠবেন।

ফেসবুক থেকে ই-কমার্স বিজনেস, যে কোনো স্কীলের জন্য ক্লায়েন্ট খুঁজে পাওয়া যায়। যে কোনো বিজনেসের প্রথম এবং প্রধান মার্কেটিং সেক্টর এখন ফেসবুক। সে জন্যই ফেসবুক মার্কেটিংয়ের দক্ষতাই আজকের এ যুগে সবচায়ে চাহিদাসম্পন্ন দক্ষতা। এ দক্ষতা থাকলে ঘরে বসে যে রকম ইনকাম করা যায়, ঠিক একইভাবে লোকাল বিভিন্ন কোম্পানিতেও চাকরির বিশাল সুযোগ রয়েছে।

ফেসবুক মার্কেটারদের জন্য আরেকটা বিশাল সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি, যা ইতিমধ্যে খুব ভালোভাবেই দৃশ্যমান হচ্ছে। এবং সেই সেক্টরে সামনে আরো বিশাল সম্ভাবনা তৈরি হবে ফেসবুক মার্কেটারদের জন্য। আচ্ছা, বক বক না করে সেই সেক্টরটি নিয়েও এ বইয়ে আলোচনা করছি।

ফেসবুক মার্কেটিংয়ে দক্ষদের ভবিষ্যৎ বিশাল কর্মক্ষেত্র: রাজনীতি মাঠ

রাজনীতিক নেতারা নিজেদের ভোট চাওয়ার জন্য গুণগান প্রচার করতে হয়। আর সেগুলো প্রচারের জন্য পোস্টার, লিফলেট, মাইক, টিভি, রেডিওকে মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে। এগুলো ট্রেডিশনাল মাধ্যম। আধুনিক যুগে সব পলিটিক্যাল ব্যক্তিকে তাদের প্রচারণা চালানোর জন্য সবচেয়ে বেশি সোশ্যাল মিডিয়া, বাংলাদেশে ফেসবুককেই বেশি ব্যবহার করছে।

কারণ সবাই জানে, অন্য জায়গাগুলোতে অনেক কম মানুষ অ্যাকটিভ থাকলেও বর্তমান যুগে সব ভোটারই সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক অ্যাকটিভ। তাই তাদের কাছে নিজেদের বাণী পৌঁছাতে হলে সবচেয়ে ইফেকটিভ মাধ্যম হচ্ছে ফেসবুক। ইতিমধ্যে কয়েকটি নির্বাচনে প্রার্থীদের ফেসবুকে ক্যাম্পেইনের ব্যবহার অত্যধিক মাত্রাতে দেখা গেছে। সামনে আরও বাড়বে।

আচ্ছা, ফেসবুকের প্রচারণার পেছনের লোকজনকে কখনও ভেবেছেন? পেছনের সেই লোকগুলোই হচ্ছে, একেকজন দক্ষ ফেসবুক মার্কেটার, যাকে পেমেন্টের বিনিময়ে হায়ার করা হয়েছে। আপনার দক্ষতা থাকলে এবং কিছু কাজের পোর্টফলিও থাকলে অবশ্যই আপনি সেই চাহিদাসম্পন্ন জায়গাতে চাকরি পেয়ে যেতে পারেন।

কিছু দিন আগে বেসিস (বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস) এর নির্বাচনে (২০১৮ সালের ৩১ মার্চের নির্বাচন) সোশ্যাল মিডিয়াতেই ক্যাম্পেইন চলছিল। তখন একজন সদস্যকে তার ক্যাম্পেইনের ব্যাপারে সাজেশন তৈরি করে দিয়েছিলাম।

সেটি এ বইয়ে উল্লেখ করতে চাই। হয়তো, এখান থেকেই আপনারাও শিখতে পারেন। বলা তো যায় না, ভবিষ্যতে হয়তো কোনো নির্বাচনে কোনো প্রার্থীর ক্যাম্পেইনের দায়িত্ব আপনি পেয়ে যেতে পারেন। তখন এ সাজেশনগুলো কাজে লাগবে।

বেসিস ইলেকসনে ডিজিটাল প্রচারণা নিয়ে পর্যালোচনা

প্রার্থীরা সবাই নিজের প্রোফালই শেয়ার করছে, কে কী করছে, এবং কী করবে সেটি নিয়ে নিউজ করে সেটির লিংক শেয়ার করছে। ভোটারদের কাছে ই-মেইল করছে, যার ফরম্যাটিং দেখলেই ভোটাররা প্রার্থীর যোগ্যতা নিয়ে, প্রফেশনালিজম নিয়ে নেগেটিভ ধারণাই পাবেন।

প্রার্থীরা কে কী, সেটা প্রচারণার মেসেজের চেয়ে তাদের প্রচারণাতে গুরুত্ব পাওয়া উচিত ছিল, উনি কী করবে, কেন তিনি করবেন, কীভাবে সেটি করবেন। তাহালে ভোটারদের ডিসিশন তৈরিতে সেটির প্রভাব পড়ত।

ডিসিশন তৈরির জন্য যে মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি করা হয়, সেই সময় আসলে মাথাতে রাখতে হয়, আমার প্রেজেন্টেশন দিয়ে আমার ওপর আস্থা ফেরানো, মেসেজ ডেলিভারির ক্ষেত্রেও স্মার্ট হতে হয়, যাতে প্রচারণা করতে গিয়ে অন্যের বিরক্তির কারণ তৈরি না হয়।

এক্ষেত্রে আমার পরামর্শগুলো:

১) প্যানেলের একটা ওয়েব সাইট থাকা জরুরি। প্যানেলের মূল এজেন্ডা থাকবে হোম পেজে। প্রত্যেক প্রার্থীর জন্য আলাদা একটা পাতা থাকবে। সেখানে কী করব, কেন তা ঠিক করলাম, কীভাবে করব, আর আমি কেন সেটা খুব ভালোভাবে করতে পারব আমার পারসোনাল যোগ্যতা আর পূর্বঅভিজ্ঞতা কী, আর সেটা কীভাবে আমার এসব করতে সাহায্য করবে তা তুলে ধরতে হবে।

সাইটের ব্লগ সেকশনে প্রতিদিনই নানা বিষয় নিয়ে লেখা দরকার। এ ক্যাম্পেইনে ভোটারদের সাইটে নিয়ে আসার জন্য সিস্টেমেটিক একটা প্রচার চালাতে হবে।

প্রতিদিন একটা লাইভ প্রোগ্রাম করতে হবে। প্যানেলের প্রত্যেকে আলাদা আলাদা দিন লাইভে আসবে। প্যানেলের টার্গেট গুলো নিয়ে আলোচনা করবে, প্রশ্নের উত্তর দেবে। সেই ভিডিওটাই হতো আসলে নতুন কনটেন্ট। সেই কনটেন্টই বিভিন্ন গ্রুপে প্রতিদিন শেয়ার করা উচিত।

প্রতিদিন গ্রুপের মেম্বাররা তাদের ওয়ালে প্লাস গ্রুপে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে একটা ইমপ্যাক্টফুল লেখা লিখত। যার টার্গেট হচ্ছে সাইটে নিয়ে আসা। এই নিয়ে আসা নিয়ে ক্রিয়েটিভ অনেক আইডিয়া বের করা যায়। অনেক আইডিয়াই আসলে এই জন্য বের করা যায়।

২) ওয়েবসাইটের ব্লগ সেকশনে প্রতিদিনই আইটি ইন্ড্রাস্ট্রির সমস্যাগুলো নিজের চোখে কী রকম দেখছি, সেটি নিয়ে সবার সঙ্গে শেয়ার করার ব্যবস্থা করলে ভালো হবে এবং সেগুলো সমাধানে নিজের চিন্তাভাবনা শেয়ার করলেও অন্যরা পড়লে চিন্তাভাবনার সক্ষমতা নিয়ে একটা পজিটিভ ধারণা পাবে।

৩) প্রতিদিন লাইভ প্রোগ্রাম করলে, সেটি অনেক ভালো হতো। সেই লাইভ প্রোগ্রামে ভোটাররা যখন সরাসরি ইন্টারেকশনের সুযোগ পাবে, তখন প্রার্থীর সঙ্গে ভোটারের আত্মিক সম্পর্কটা আরও গাঢ় হতো, যা প্রার্থীর ব্যাপারে ভোটারের সিদ্ধান্ত নিতে অনেক সহযোগিতা করবে।

৪) সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে প্রার্থীর জীবনের অভিজ্ঞতাগুলো নিয়ে সেশনের ব্যবস্থা করা যেত। এ সেশনগুলো লিখিত কিংবা ভিডিও আকারে হবে। সেই সেশনে সেই প্রার্থী তার সফলতা কিছু চ্যালেঞ্জিং মুহূর্ত এবং সেই চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করার ঘটনাগুলো উল্লেখ করত। তাতে ভোটাররা সেই প্রার্থীর যোগ্যতার ব্যাপারে আস্থা পেত।

৫) ফেসবুকে ইউজারদের অ্যাটেনশন পাওয়ার জন্য ইনফোগ্রাফিক ইমেজ ব্যবহার করতে হবে। ইনফোগ্রাফিকগুলো কি কি বিষয়ের ওপর হতে পারে: জীবনে এখন পযন্ত আমার অর্জন, আইটি ইন্ড্রাস্ট্রিতে অবদান, বেসিসে পূর্বে দায়িত্বপালনকালীন কৃতিত্বগুলো, ভবিষ্যতে দায়িত্ব পেলে কি কি ফোকাস থাকবে ইত্যাদি।

ভাবেন তো, এ বিষয়গুলো এখন খুব বিশ্রী ফরম্যাটে মেইল করা হচ্ছে, কিংবা অনলাইন লিখে বুস্টিং করা হচ্ছে, কিংবা নিউজ পোর্টালে নিউজ করা হচ্ছে, কিন্তু কতজন সেগুলো পড়ছে, বেশির ভাগ স্কিপ করে যাচ্ছে। কিন্তু এই বিষয়গুলো ইনফোগ্রাফিক ডিজাইন করে পোস্ট করা হলে অনেক বেশি মানুষের নজরে আসত।

৬) কোটেশন সিরিজ টাইপ পোস্টের মতো নিজের করা বিভিন্ন কার্যক্রম কিংবা নিজের মেসেজ, কিংবা ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে প্রতিদিন সিরিজ ইমেজ পোস্ট শুরু করা উচিত। সিরিজ ইমেজগুলো অনেক বেশি অ্যাটেনশন তৈরি করতে পারে।

৭) GIF ভিডিওর মাধ্যমে প্রতিদিন শর্ট কিছু মেসেজ শেয়ার করা যায়।

৮) শর্ট ভিডিও, সম্ভব হলে অ্যানিমিটেড ভিডিওগুলো অনেক বেশি অ্যাটেনশন পায়। সেই ভিডিও তৈরি করে প্রতিদিন পরিকল্পনামাফিক পোস্ট করা দরকার।

৯) বেসিসে দায়িত্বপালনকালীন বিভিন্ন ছবির একদিন একটা ছবি পোস্ট করে, সেটির পেছনের গল্পটা নিয়ে নিয়মিত পোস্ট থাকতে পারে, যা পুরনো কার্যক্রমকে আবার মনে করে দিত সবাইকে, যার অর্জনগুলো হয়তো সবাই ভুলে গেছে। এ রকম পদ্ধতিতে মনে করিয়ে দিলে আমি শিউর, ভোটারদের সিদ্ধান্ত তৈরিতে এটি কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।

১০) প্রতিদিনের প্রচারণা কার্যক্রম চালাতে গিয়ে সেটির কোনো অভিজ্ঞতা প্রতিদিন শেয়ার করার ব্যবস্থা করতাম, তাহলে সবাই আপডেট থাকবে। এটিও অ্যাটেনশন তৈরিতে অনেক সহযোগিতা করবে। আমার মনে হয়, এখন যেভাবে মার্কেটিং করবে, তাতে ভোটারদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে খুব বেশি প্রভাব পড়বে বলে মনে হয় না।

এটাই ইনবাউন্ড মার্কেটিং। যে কোনো নির্বাচনেও এ রকম পরিকল্পনামাফিক মার্কেটিং যারা করবে, তারাই ভোটের যুদ্ধে অনেকটুকু এগিয়ে থাকবে।

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৫ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-5


লেখক: মো. ইকরাম, পরিচালক, নেক্সাস আইটি।

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৪ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-4

কীভাবে অ্যানগেজমেন্ট বৃদ্ধি করবেন?


প্রতিদিন ফেসবুক পেজটিতে ৩টি করে পোস্ট দেবেন। কী পোস্ট করবেন, সেগুলো নিয়ে আগে কিছুটা ব্রেন স্ট্রোমিং করে নিন। ব্রেন স্ট্রোমিং করার ব্যাপারে কিছু পরামর্শ দিতে পারি।

ধরি, আপনার ব্যবসাটি হবে দেশীয় ভেজালমুক্ত খাবার, যেমন: ফরমালিনমুক্ত আম। তাহলে ফরমালিনের আপনার কন্টেন্টগুলো হবে, ফরমালিনের ক্ষতিকারক দিক সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়, আম নিয়ে বিভিন্ন টপিকসও এখানে যুক্ত হতে পারে।

এবার তাহলে এ সম্পর্কিত অনলাইনে কি কি পোস্ট আছে সেগুলো খুঁজে বের করে আগে সব লিস্ট করে রাখুন।

লিস্ট করে রাখা সব পোস্টগুলো থেকে এবার কন্টেন্ট তৈরি করুন। ফেসবুকের কন্টেন্ট সাইজ বেশি বড় না হওয়াটাই ভালো। ব্লগের কনটেন্ট হতে হয় বড়। অনলাইন থেকে খুঁজে বের করা আর্টিকেলগুলো থেকে নিজের মতো করে কন্টেন্ট তৈরি করুন।

কপি কন্টেন্ট না করে নিজের মতো করে কন্টেন্ট উপস্থাপন করুন। কপি কন্টেন্ট ব্যবহার করলে ব্রান্ডিংয়ে কম সফল হবেন। এমন কন্টেন্ট তৈরি করুন, যা মানুষের জন্য উপকারী হবে।

মানুষের উপকারী তথ্য দিয়ে কোনো পোস্ট করলেই, পেজের মেম্বাররা আপনাকে বন্ধু মনে করা শুরু করবে, আপনার ওপর আস্থা শুধুমাত্র তখনই তৈরি হবে।

শুরুতে কখনোই বিজ্ঞাপন টাইপ কোন পোস্ট করবেন না, তাতে বন্ধুত্ব তৈরি হবে না, দূরত্ব তৈরি হবে।

প্রতিদিনের ৩টি পোস্টের মধ্যে একটি পোস্ট কুইজ টাইপ হতে পারে। কুইজ টাইপ পোস্টে কমেন্ট এবং লাইক প্রচুর পাওয়া যায়।

সপ্তাহের একদিন ইনফোগ্রাফিকস ধরনের পোস্ট করতে পারেন। ছবি সম্পর্কিত পোস্টগুলো প্রচুর শেয়ার হয় এবং অ্যানগেজিংও প্রচুর বৃদ্ধি পায়।

আমি আমার একটি ফেসবুক পেজে (https://www.facebook.com/dr.foyzunnahar) এ কাজটি করেছিলাম। সেই রকম একটি ইমেজ এখানে শেয়ার করছি। ইমেজটি লক্ষ্য করলে দেখবেন, সেখানে মানুষের জন্য উপকারী তথ্য দেওয়া আছে এবং ছবিটি দেখতেও আকর্ষণীয় হওয়ার কারণে অবশ্যই এটা শেয়ার হবে।

ছবিটির নিচের ফেসবুক পেজের নাম থাকার কারণে, যাদের ওয়্যালে শেয়ার হচ্ছে, তাদের কাছ থেকে তাদের বন্ধুরা পেজটি সম্পর্কে জানতে পারবে। আর বারবার এ পেজটির নাম জানলেই, সেটি ব্রান্ড হয়ে দাঁড়াবে। ব্যবসায়িক কারণে তৈরি কোনো ইমেজ কেউ সেটি শেয়ার করবে না।

কোনো একজন ডিজাইনারকে দিয়ে একটিমাত্র ছবি তৈরি করে নিন। পরে প্রতি সপ্তাহে শুধুমাত্র লেখা আর ছবি খুব সহজে নিজেই পরিবর্তন করে নিন। কাজটি তাহলে সহজ হয়ে যাবে।

শুরুর দিকে খুব সতর্কভাবে প্রতি ৩দিন পরপর কোনো একটি পোস্টে আপনার ব্যবসার কথা বলতে পারেন, তবে এত তাড়াতাড়ি সরাসরি প্রোডাক্ট বিক্রির কথা বললে, সেটি ব্রান্ডিংয়ের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে।

সে রকম একটি পোস্টের উদাহরণ দিচ্ছি এখানে:

গত সপ্তাহে রাজশাহীতে আমার নিজের পরিচিত একটি বাগান থেকে ইকরাম ভাইয়ের কাছে এক মণ আম বিক্রি করেছিলাম। উনার পরিকল্পনা ছিল, আমগুলো এক মাস ধরে খাবে। কিন্তু ২ দিন পর দেখেছে, বেশির ভাগ আম পচে কাল হয়ে গেছে। হুমম, এটিই হচ্ছে, ফরমালিনমুক্ত আমের প্রধান বৈশিষ্ট্য।

- মানুষের জন্য উপকারী এবং আপনার ব্যবসা সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে মাঝে মাঝে চেষ্টা করুন, ব্লগে পোস্ট করেন। ব্লগপোস্টটির নিচে শুধু পেজে লাইক দেয়ার অনুরোধ করে পেজের লিংক দিয়ে এলেই হবে। ব্লগপোস্টে আর অন্য কোনো বিজ্ঞাপন চালানোর লোভ সংবরণ করুন। এ রকম ব্লগের জন্য পোস্ট মাসে ২টি হলেই চলবে। আরও বেশি করতে পারলে তো কথাই নেই। ভালোই হবে।

- কাছের মানুষদের কাছ থেকে পেজের রিভিউ অংশে ভালো রিভিউ লিখে নিন। অনুরোধের মাধ্যমে তাদের কাছ থেকে আদায় করে নিতে পারে শুরুর দিকে। যারা একটু অনলাইনে বেশি পরিচিত তাদের কাছ থেকে রিভিউ নিতে পারলে বেশি ভালো হবে। এ রিভিউ দেখে মানুষের মনে আপনার কাছ হতে প্রোডাক্ট কেনার ব্যাপারে আস্থা তৈরি হবে। কাছের মানুষের কাছে প্রোডাক্ট বিক্রি করেই রিভিউ নিন, মিথ্যা রিভিউ নেয়ার দরকার নেই।

- ১ মাস পর থেকে প্রতিদিনের ৩টি পোস্টের মধ্যে একটি পোস্ট অবশ্যই একটি বিজ্ঞাপনধর্মী পোস্ট হবে। দুটিও হতে পারে। চেষ্টা করুন, সেই ব্যবসা সম্পর্কিত নিজের যেকোনো কার্যক্রমগুলোই সেখানে পোস্ট করার জন্য্। তাহলে অ্যানগেজিংটা অনেক বাড়বে। তবে সব সময়ই বিজ্ঞাপনের বাইরেও সবার জন্য উপকারী কনটেন্ট অবশ্যই করার দিকে সচেতন থাকতে হবে।

- যেসব পোস্টগুলো সবার জন্য কাজে লাগবে, সেই পোস্টগুলো অন্যগ্রুপেও শেয়ার করুন। তাহলে এ ফেসবুক পেজটির লাইক বাড়তে থাকবে।

- ভিডিও তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন। ভিডিও শেয়ার হয় প্রচুর। সেখান থেকেও অনেক লাইক বৃদ্ধি পাবে। মাসে একটি ভিডিও আপলোড করার পরিকল্পনা রাখলেই ভালো হবে।

- মাসে একটি করে বিশেষ অফার দিতে পারেন। তবে সব সময় ব্যতিক্রম কিছু উদ্যোগ নিলে সেটি মানুষের নজরে খুব সহজে আসবে। এ রকম একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ফেসবুকে দেখলাম। সেটি শেয়ার করলাম।

Food Republic is calling all foodies for an Epic Challenge! Introducing The Abomination Challenge! Finish it all in 30 minutes and get all for free! Are you Ready?

Rules:
1. This challenge applies for one person

2. Time starts as soon as the timer starts

3. The challenger needs to clear all of the food and drink that is served

4. Food Republic reserves the right to change or omit any part of the challenge without prior announcement.

এ রকম ক্যাম্পেইন কমপক্ষে ৩ মাসে একবার হলেও অবশ্যই করতে হবে। এটি আপনার ব্রান্ডিং কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেবে।

- যদি লোকাল ব্যবসা হয়, তাহলে সেক্ষেত্রে অফলাইন বিভিন্ন উদ্যোগও অবশ্যই নিতে হবে। নাহলে ব্রান্ডিং করা যাবে না। গরিব কিংবা এতিমদের বিনা মূল্যে ফ্রি ফল খাওয়ানোর উদ্যোগ, এ রকম কিছু অফলাইন ক্যাম্পেইন ব্রান্ডিংয়ের কাজকে অনেক সহজ করে দেবে। নিজের মাথা থেকে ব্যতিক্রম কিছু এ রকম উদ্যোগ নিতে পারেন।

অ্যানগেজমেন্ট এবং পেজের লাইক বৃদ্ধির আরও অনেক ধরনের উপায় বের করা যেতে পারে। এগুলো এখানে আর আলোচনা করলাম না।

সপ্তম ধাপ: প্রোডাক্ট বিক্রির জন্য পেমেন্ট সিস্টেম): সব পেমেন্ট সিস্টেমের ব্যবস্থা করা না গেলেও চেষ্টা করতে পারেন জনপ্রিয় সব পেমেন্ট সিস্টেমগুলোতে ক্লায়েন্টের পেমেন্ট দেয়ার ব্যবস্থা করা। বাংলাদেশের জন্য বিকাশ, ব্র্যাক ব্যাংক, ডাচ-বাংলা ব্যাংক এই জনপ্রিয় পেমেন্ট গেটওয়েগুলোর মাধ্যমে পেমেন্টের ব্যবস্থা অবশ্যই রাখতে হবে।

সব লেনদেন যতটুকু সম্ভব স্বচ্ছ রাখার চেষ্টা করবেন। তাহলেই সবার মধ্যে ব্যবসা সম্পর্কে আস্থা তৈরি হবে। এবং ব্যবসা অনেক বড় হবে, এবং সেই সঙ্গে টিকবেও অনেক দিন।

পেজের অ্যানগেজমেন্ট বৃদ্ধির জন্য পরিকল্পনা আগে সাজিয়ে নিন। তাহলে কাজের সুবিধা হবে।

বাংলাদেশে সফল দুটি ই-কমার্স বিজনেস পেজের নাম এবং লিংক দিচ্ছি, তাদের পোস্টগুলোও অনুসরণ করেন। ওদের কনসালটেন্সি আমি করি। এবং তারা অনেক বেশি সফলও। তাদের পেজ দেখলেই পোস্টের ধরন সম্পর্কে আইডিয়া পাবেন।

১) জামদানি শাড়ি: https://web.facebook.com/JamdaniVille/

২) শুঁটকি: https://web.facebook.com/coxsbazarEshop/

ফেসবুক থেকেই আয়-রোজগার: পর্ব-৪ || Earn Money from Facebook- Bangla Tutorial Part-4


লেখক: মো. ইকরাম, পরিচালক, নেক্সাস আইটি।

Blog Archive